অসহায়দের খাদ্য নিয়ে দুর্নীতি করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবেঃ এমপি এনামুল হক

মুকুল হোসেন বাগমারা প্রতিনিধি:

রাজশাহীর বাগমারা আসনের সংসদ সদস্য, ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বলেছেন, করোনা ভাইরাসের কারণে গৃহবন্দি অসহায় মানুষের খাদ্য সামগ্রী বা ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতির চেষ্টা করবেন না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,“ ত্রাণ নিয়ে কোন অনিয়ম-দুর্নীতি সহ্য করা হবে না”।

করোনা সংকট মোকাবেলায় সরকার অসহায়ের জন্য চালু করেছেন বিশেষ খাদ্য সহায়তা। দেশে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে গৃহবন্দি হয়ে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষ।দেশব্যাপি সেই সকল মানুষের জন্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বিশেষ খাদ্য সহায়তা চালু করেছেন।

সেই সঙ্গে তিনি নিম্ন আয়ের মানুষের তালিকা তৈরী করে তাদের বাড়িতে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী (ত্রাণ) পৌঁছে দেয়ার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন জনপ্রতিধিদের। এ জন্যে বাগমারার ১৬টি ইউনিয়ন এবং ২’টি পৌরসভায় প্রকৃত অসহায়দের তালিকা তৈরী করতে বলা হয়েছিল।

এই ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে কোন অনিয়ম যেন না হয় সে বিষয়ে মেয়র এবং চেয়ারম্যানদের বিশেষ সর্তকতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছিল।
এ কার্যক্রমের সাথে জড়িত কারও বিরুদ্ধে কোন রকম অনিয়ম-দুর্নীতির খবর পাওয়া গেলে তা মেনে নেয়া হবে না। যদি কোন অনিয়ম-দুর্নীতি প্রমাণিত হয় তাহলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তাই করোনা সংকটে কোন অসহায়কে যেন খাদ্য সামগ্রীর অভাবে না খেয়ে থাকতে হয়। সকলের আন্তরিক সহযোগিতায় সরকারের বিশেষ এ কার্যক্রম সফলতার সাথে বাস্তবায়ন করা যেন সম্ভব হয়। সে জন্য উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন এবং পৌরসভার জনপ্রতিনিধিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এমপি এনামুল হক।

তিনি উল্লেখ করেছেন, করোনা সংকট মোকাবেলা করতে সরকারের যা যা করা প্রয়োজন সেটাই করছে। সেই সাথে সামর্থ্যবানদের সহযোগিতাও জরুরী। ব্যক্তিগত ভাবে আমিও সহযোগিতা করছি। করোনা সংকট মোকাবেলায় আমার এই সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। পাশাপাশি সকলকে মহামারি করোনা ভাইরাসের কবল থেকে নিজে এবং পরিবারকে বাঁচাতে সরকারের সকল নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানাচ্ছি।

সময়নিউজ২৪.কম / বি এম এম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *