ইবিতে দুইটি ১০ তলা বিশিষ্ট আবাসিক হলের কাজ উদ্বোধন

ইবি প্রতিনিধি:

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে(ইবি) দুইটি ১০ তলা বিশিষ্ট আবাসিক হলের কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে।বুধবার (১৩ অক্টোবর) দুপুর দেড়টায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া সদর ৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফ এ কাজের উদ্বোধন করেন। এ কাজের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে ১০৬ কোটি টাকা।জানা যায়, ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য দুইটি ১০ তলা বিশিষ্ট আবাসিক হলের কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। একটি আবাসিক হল নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৫৩ কোটি টাকা। কাজ সম্পূর্ণ হলে দুই হলে একইসাথে ২ হাজার শিক্ষার্থীর আবাসিক সুবিধা নিশ্চিত হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম,উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড, আলমগীর হোসেন ভূঁইয়্যা, প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেন ও সাবেক কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা।এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া ৪ আসনের সংসদ সদস্য ব্যরিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর স্টাডিজ বিভাগের সভাপতি ড.মিঠুন মোস্তাফিজ হল উদ্বোধনের আগে এক আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া সদর ৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, ‘ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুইটি আবাসিক হলের কাজের উদ্বোধন হওয়ায় আমি আজ আনন্দিত। একসময় আমরা বিশ্বের কাছে মিসকিনের দেশ হিসেবে পরিচিত ছিলাম। কিন্তু আজকে জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশে অবকাঠামো উন্নয়ন
চলমান আছে। দেশ উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে। তবে দেশে বিশাল জনগোষ্ঠী ও সীমিত সম্পদ নিয়ে, এবং রাজনৈতিক বৈরি পরিবেশে দেশের উন্নয়নকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া, এটা কিন্তু কঠিন চ্যালেঞ্জের ব্যাপার।’

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম বলেন, ‘গবেষণাই একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের  অর্জন। বিল্ডিং দশ না পাঁচ তলা হবে নাকি কুঁড়ে ঘরে ক্লাস করবো তা কোন বিষয় না। কিন্তু বিশ্বসেরা গবেষকের তালিকায় নাম লেখানো বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য বড় অর্জন। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের  মাটি কতটা শক্ত তা প্রমাণ হবে আপনাদের গবেষণার দ্বারা। আপনি কতবার জিন্দাবাদ/মুর্দাবাদ দিয়েছেন তা কোথাও লেখা থাকবেনা। লেখা থাকবে আপনি গবেষণায় কতটা অবদান রেখেছেন।বিশ্বসেরা গবেষণার তালিকায় নাম লিখিয়ে এই সংকট কাটাতে হবে।এসময় তিনি বিশ^ সেরা গবেষকের তালিকায় স্থান পাওয়া ১৭ শিক্ষককে অভিনন্দন জানান’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *