ইয়াবার মতো মরণ নেশার সর্বগ্রাসী ব্যবসা ছাড়ুন, নইলে কী পরিণতি হবে দেখার অপেক্ষায় থাকুন

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল :
সমপ্রতি নড়াইলে বিপুল পবিমান ইয়াবা ট্যাবলেট উধার নিয়ে, ইয়াবা ট্যাবলেট ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার), বলেছেন, ইয়াবার মতো মরণ নেশার সর্বগ্রাসী ব্যবসা ছাড়ুন অন্য করুন।

না হলে একমাত্র সৃষ্টিকর্তাই জানেন আপনাদের পরিণতি কী ভয়াবহ হবে এ কথা বলেন। পুলিশ সুপার বলেন, ‘এই দেশে ইয়াবার মতো মাদকের ব্যবসা আর কাউকে করতে দেওয়া হবে না। আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায় জানান, কাজেই আমরা যাকে যেভাবে পারছি বলছি বুঝাচ্ছি, আপনারা এ পথ থেকে সরে আসেন। অন্য ব্যবসা শুরু করেন। আমরা বলছি, হয় সারেন্ডার করেন নইলে কী পরিণতি হবে তা দেখার অপেক্ষায় থাকেন।’ ইয়াবা ব্যবসায়ীদের ও ইয়াবা সেবীদের উদ্দেশ্যে পুলিশ সুপার বলেন, ‘যারা ইয়াবা গ্রহণ ও ইয়াবা সেবন করছেন তাদের নিজের জীবন নিজেই শেষ করছেন। আমি বলব, মরণ নেশা ইয়াবা থেকে সরে আসুন। কেউ একটানা দুই বছর ইয়াবা সেবন করলে তার কর্মক্ষমতা সম্পূর্ণ শেষ হয়ে যায়। সে দাঁড়াতে পারে না। কোনো কাজ করতে পারে না, ঘুমাতে পারে না, মানুষের সঙ্গে কথা বলতেও তার কষ্ট হয়। একঘরে হয়ে যায়। এভাবে একসময় মৃত্যুর পথযাত্রী হয়। মাদক সেবনের ফলে দাম্পত্য জীবন ধ্বংস হচ্ছে। পুলিশ সুপার বলেন, ইয়াবা যেন দেশে প্রবেশ করতে না পারে সে জন্য পুলিশ পাহারা বসিয়েছি। এরপরেও নড়াইলের কিছু দুর্গম এলাকা রয়েছে, সেদিক দিয়ে ইয়াবা আসছে বলে মনে করছি আমরা। সেখানে আমরা কাজ করছি। আমরা ইয়াবা প্রতিরোধে পুলিশ শক্তিশালী করছি। পুলিশ সুপার ঢেলে সাজিয়েছি। আগে যেখানে তিন চার জেলা মিলে একজন কর্মকর্তা ছিলেন। এখন সেখানে প্রতি জেলায় কর্মকর্তা বসানো হয়েছে। ইয়াবা ব্যবসায়ীদের নতুন আইন হয়েছে। উন্নত যোগাযোগের জন্য সবার হাতে ওয়াকিটকি দেওয়া হয়েছে। যেভাবে আমরা জঙ্গি প্রতিরোধ করেছি, আমরা ইয়াবা প্রতিরোধে শক্তিশালী কোণঠাসা করেছি একইভাবে আমরা ইয়াবাকেও আয়ত্তে আনার চেষ্টা করছি। অপরদিকে পুলিশ সুপার বলেন, ‘জরিপে দেখা গেছে যারা ইয়াবা সেবন করেন তাদের বেশির ভাগের বয়স ১৮ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে। এর নিচের বয়সও রয়েছে। স্কুলগামী শিক্ষার্থীরা ও ইয়াবা গ্রহণ করছে। পথশিশুরাও সীসা নিচ্ছে। সবকিছু আমরা দেখছি। ইয়াবা প্রতিরোধে আমরা সব ধরনের কাজ করছি। সারাদেশে ডিজিটাল বিল বোর্ডের মাধ্যমে ইয়াবা সচেতনতা সৃষ্টির উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। সেমিনার অব্যাহত রয়েছে।

আশা করছি ইয়াবা আয়ত্তে আসবে। পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) বলেন, পুলিশের একার পক্ষে সব ধরনের অপরাধ নির্মূল করা সম্ভব না। অপরাধ সমূলে উৎপাটন করতে চাইলে পুলিশের পাশাপাশি রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, সাংবাদিক, ইমাম, পেশাজীবিসহ সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের সচেতনতা ও একান্ত সহযোগিতা প্রয়োজন। পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) বলেন, জঙ্গিরা দেশকে গ্রাস করতে চেয়েছিল। সারা বিশ্বের কাছে একটি নেতিবাচক দেশ হিসেবে হিহ্নিত করতে চেয়েছিল। কিন্তু সাধারণ মানুষ ও মিডিয়ার সহযোগিতায় পুলিশ জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে কার্যকরী ভূমিকা পালন করেছে। ইতোমধ্যেই জঙ্গি নির্মূলে পুলিশ সফল হয়েছে। দেশে একজন জঙ্গি থাকা পর্যন্ত দেশব্যাপী এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। দেশের মানুষ শান্তিতে থাকুক, আমরা জেগে থাকব তাদের নিরাপত্তায়।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) আরও বলেন, ‘মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি’ বলবৎ আছে। যারা এ পথ পরিহার করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চায় তাদের সুযোগ দেওয়া হবে। যারা মাদক ব্যবসায় জড়িত, তারা যত শক্তি শালীই হোক, আইনের আওতায় তাদের আসতেই হবে। মাদক ব্যবসায়ীরা আইনের কাছে আত্মসমর্পন না করলে আগামীতে তাদের জন্য ভয়ানক দিন অপেক্ষা করছে। এ ব্যাপারে নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার),আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়কে জানান, ইয়াবা নির্মূল করতে বর্তমান সরকার বদ্ধ পরিকর। আমরা চাহিদা, জোগান এবং পুনর্বাসনের বিষয়ে সমানতালে কাজ করছি। চাহিদা হ্রাসের ক্ষেত্রে আমরা ইয়াবা বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন সৃষ্টি করার দিকে জোর দিচ্ছি।

নড়াইল জেলাকে ইয়াবা ট্যাবলেট মুক্ত করার লক্ষ্যে ইয়াবা ট্যাবলেট বিরোধী অভিযান চলমান রয়েছে। তিনি আরও বলেন, ইয়াবা ট্যাবলেট ব্যাপারে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। এজন্য সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। ৫’শ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। আটক মাদক ব্যবসায়ী কাজী রমজান আলী নড়াইলের শামুকখোলা গ্রামের কাজী নজরুল ইসলামের ছেলে। নড়াইলের নোয়াগ্রাম ইউনিয়নের শামুকখোলা গ্রামে অভিযান চালিয়ে রমজান আলীকে তার বাড়ির উঠানের ওপর থেকে আটক করে। এ সময় তার কাছ থেকে মোট ৫০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। ধৃত আসামীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হবে।

সময় নিউজ২৪.কম/এএসআর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *