করোনায় একজন মানুষও না খেয়ে মারা যায়নি ———-নওগাঁয় খাদ্যমন্ত্রী

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠনঃ
করোনা ভাইরাস মহামারীতে একজন মানুষও না খেয়ে মারা যায়নি বললেন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় খাদ্যমন্ত্রী।
করোনার ভাইরাস প্রতিরোধ সংক্রান্ত নওগাঁ জেলা কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে উপরোক্ত কথা বলেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি।
খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি বলেছেন, বৈশ্বিক করোনা ভাইরাসে এখন পর্যন্ত দেশের কোথাও একজন মানুষও না খেয়ে মারা যায়নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আমরা করোনা ভাইরাস সঠিকভাবে ও সফলতার সঙ্গেই মোকাবিলা করেছি। এতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিশ্বের অনেক দেশ ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রশংসা পেয়েছেন।
তিনি সোমবার বিকালে নওগাঁ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে করোনার ভাইরাস প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন। এসময় মন্ত্রী মহোদয় আরও বলেন, আমেরিকা, ফ্রান্সসহ উন্নত দেশগুলো করোনাকে মোকাবেলা করতে হিমশিম খেয়ে যাচ্ছে। আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিান একটু হলেও করোনাকে কন্টোল করেছে। তার সাথে আমাদের অর্থনৈতিক চাকাও ঘুরে দাঁড়িয়েছে। তাই দ্বিতীয় ধাপে করোনাকে মোকাবেলা করতে হবে।
মন্ত্রী বলেন, যেদিন আমেরিকা, ফ্রান্স প্রথম করোনা ভ্যাকসিন মানুষের মানবদেহে পুশ করা হবে সেদিন বাংলাদেশেও একসাথে মানুষের দেহে ভ্যাকসিন পুশ করা হবে। ইতিমধ্যে ভ্যাকসিন এর জন্য চুক্তি স্বাক্ষর হয়ে গেছে। টাকাও দেওয়া হয়েছে। তাই ভ্যাকসিন নিয়ে চিন্তার কোন কারন নেই। ভ্যাকসিন যতদিন না পাওয়া যায় ততদিন স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবাইকে মাস্ক ব্যাবহার করতে হবে তাহলে দ্বিতীয় ধাপেও আমরা করোনাকে মোকাবেলা করতে পারবো।
সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, তাই গণপরিবহন, শহরে বিপনী বিতান, দোকানপাটে মালিক কর্মচারিদের মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করতে হবে। পাশাপশি গণপরিবহন, শহরে বিপনী বিতান, দোকানপাটে কোন ক্রেতা মাস্ক ছাড়া পণ্য ক্রয় করতে গেলে তাদেরকে কোনো পণ্য না দেওয়ার অনুরোধ জানান মন্ত্রী মহোদয়।
সভায় নওগাঁ-৩ আসনের এমপি আলহাজ্ব মোঃ ছলিম উদ্দিন তরফদার সেলিম, জেলা প্রশাসক হারুন অর রশিদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার চিশতীসহ প্রশাসনের কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, স্বাস্থ্য বিভাগ, মুক্তিযোদ্ধা, ব্যবসায়িক নেতৃবৃন্দ, গণপরিবহনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।
সময় নিউজ২৪.কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *