কিশোরগঞ্জে গৃহবধু হত্যায় ছয়জনের যাবজ্জীবন

রাজিবুল হক সিদ্দিকী, কিশোরগঞ্জ:

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আব্দুর রহিম চাঞ্চল্যকর নববধু রুবা হত্যা মামলায় দুই নারীসহ ছয়জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেন। তাছাড়া প্রত্যেক আসামীকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন।সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, লুৎতু ওরফে রুকন (৩০), রুকনের চাচাতো ভাই শরীফ (২২), শরীফের বাবা সোহরাব (৪৫), সোহরাবের স্ত্রী জোৎস্না (৪০), মুসলিম (৫৫) ও মুসলিমের স্ত্রী নূর নাহার (৩৫)। এরা সবাই সম্পর্কে রুবার স্বামী শামীমের চাচা, চাচি, চাচাতো ভাই ও তার স্ত্রী।

মামলা সূত্রে জানা যায়, করিমগঞ্জ উপজেলার দেহুন্দা ইউনিয়নের ভাটিয়া মোগলপাড়া গ্রামের মৃত আ. কদ্দুসের ছেলে শামীমের সাথে বিয়ে হয় একই গ্রামের আবু বকর সিদ্দিকের মেয়ে রুবার। এ বিয়েতে শামীমের মত ছিল না। বিয়ের মাত্র ১৫ দিন পর ৩ জুন ২০১১ তারিখ রাতে আসামিরা শ্বাসরোধ করে রুবাকে হত্যা করে বাড়ির পেছনের ডোবায় ফেলে দেন। ওই দিন রাতেই তার মরদেহ উদ্ধার করে করিমগঞ্জ থানা পুলিশ। এ ব্যাপারে রুবার ভাই আলামিন বাদী হয়ে ৪ জুন রুবার স্বামীসহ ৭ জনকে আসামি করে করিমগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তদন্ত শেষে একই বছরের ৩০ ডিসেম্বর শামীম ছাড়া অপর ৬ জনের নামে আদালতে চার্জশিট দেন করিমগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) খন্দকার শওকত জাহান। আদালত সাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে এ রায় ঘোষণা করেন।
মামলাটিতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন এপিপি সৈয়দ শাহজাহান ও আসামী পক্ষে ছিলেন এ্যাড. অশোক সরকার।

সময় নিউজ২৪.কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *