কী কারণে বৈশ্বিক র‍্যাংকিংয়ে নেই ঢাবি

অনলাইন ডেস্ক: লন্ডনভিত্তিক টাইমস হায়ার এডুকেশন এশিয়ার ৪১৭টি বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে, যেখানে প্রাচ্যের অক্সফোর্ডখ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় স্থান করে নিতে পারেনি। এটি বৈশ্বিক র‍্যাংকিংয়ে হাজারের মধ্যেও নেই। কেন, সেটা আজ জাতির কাছে বড় প্রশ্ন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান গতকাল রবিবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন। একই সঙ্গে তিনি র‍্যাংকিংয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম না থাকার কয়েকটি কারণও তুলে ধরেন।

একই সংবাদ সম্মেলনে কৃষকের ধানের ন্যায্য মূল্যপ্রাপ্তি এবং পাটকল শ্রমিকদের বকেয়া বেতন প্রদানের দাবিতে দুই দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি।

ড. মঈন খান বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোর্স কারিকুলাম বা সিলেবাসগুলো উন্নত বিশ্বের নামিদামি বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে হালনাগাদ করা হয় না। এখানে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে উন্নত বিশ্বের দেশগুলো থেকে ছাপা হওয়া নামি প্রকাশকের বদলে অখ্যাত ভারতীয় বা অনুন্নত বিভিন্ন দেশের প্রকাশনা পাঠ্য বই হিসেবে বেছে নেওয়া হয়।

মঈন খান বলেন, মানসম্মত পাঠদানের জন্য মানসম্মত শিক্ষক নিয়োগ অতীব জরুরি। দুর্ভাগ্যজনকভাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে রাজনৈতিক প্রভাব চরম আকার ধারণ করেছে। দলীয় রাজনৈতিক কর্মী অর্থাত্ ছাত্রলীগের কর্মীকে নিয়োগ প্রদানের মাধ্যমে ভোটার তৈরির চেষ্টা করা হয়, যাতে শিক্ষক রাজনীতিতে প্রভাব বজায় রাখা সম্ভব হয়। 

বিএনপির এই বয়োজ্যেষ্ঠ নেতা বলেছেন, ‘শিক্ষকের নেতৃত্বে বিভিন্ন প্রাসঙ্গিক সেক্টরগুলোতে ছাত্র-ছাত্রীদের ভিজিটে নিয়ে যাওয়া হয় এবং বিশেষ করে দেশ-বিদেশের নামিদামি অধ্যাপক ও প্রাসঙ্গিক সেক্টরের সফল পেশাজীবীদের অতিথি শিক্ষক হিসেবে আনা হয়। এ রকম আধুনিক পাঠদান পদ্ধতি এরই মধ্যে বিশ্বব্যাপী প্রচলিত হয়ে গেছে। কিন্তু বাংলাদেশের শিক্ষাব্যবস্থায় চেপে বসা দুর্বল, অযোগ্য ও অদক্ষ নেতৃত্বের কারণে আমাদের প্রিয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তা বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়নি।’

ড. মঈন বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আজও স্কুলের মতো শুধুই একমুখী লেকচারভিত্তিক পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়। অথচ উন্নত বিশ্বের নামিদামি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে এর বাইরেও ক্লাসরুমে ইন্টার-অ্যাকটিভ পদ্ধতি অনুসরণ করা হচ্ছে। গ্রুপ বা ইন্ডিভিজুয়াল অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া, সারপ্রাইজ কুইজ বা টেস্ট নেওয়া, গ্রুপ বা ইন্ডিভিজুয়াল প্রেজেন্টেশন নেওয়া এবং মাল্টিমিডিয়া সরঞ্জামের সহায়তা নিয়ে অডিও বা ভিডিও ক্লিপিংস দেখানো হয়। 
সময়নিউজ২৪.কম/ এ এস আর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *