কুলিয়ারচরে কামাল হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে পিবিআই ॥ একজন গ্রেফতার

রাজিবুল হক সিদ্দিকী, কিশোরগঞ্জ:

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে কামাল হত্যার মামলার রহস্য উদঘাটন করেছে পিবিআই। ঘটনার সাথে জড়িত সুমন বিশ্বাস (৩০) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার খুরুমখালী গ্রামের সিদ্দিক আলী পাঠানের পুত্র কামাল হোসেন ও কিশোরগঞ্জ জেলার কুলিয়ারচর উপজেলার হাপানিয়া গ্রামের মৃত হিরো খানের পুত্র খোকন খান মালয়েশিয়া থাকাকালীন সময়ে পরস্পরের সহিত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তাদের বন্ধুত্ব এক পর্যায়ে উভয় পরিবারের মধ্যে পারিবারিক বন্ধুত্বে রূপ নেয়। খোকন একাধিকবার চাঁদপুরে নিহত কামালের বাড়িতে আসা যাওয়া করে। গত ৫ বছর পূর্বে খোকন খান মালয়েশিয়া হতে দেশে ফেরত আসলে নিহত কামালের সাথে যোগাযোগ অব্যাহত রাখে। খোকন বিভিন্ন সময় ব্যবসার কথা বলে নিহত কামালের নিকট হতে ব্যাংকের মাধ্যমে ও কামালের পরিবারের লোকজনের কাছ থেকে প্রায় ১ কোটি ২০ লাখ টাকা ধার নেয়। পরে নিহত কামাল দেশে এসে খোকনের নিকট টাকা ফেরত চাহিলে গত ২০২০ সনের ৩ সেপ্টেম্বর কামালকে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে আসতে বলে।

ঐদিন রাতে নিহত কামাল কুলিয়ারচরে খোকনের নিকট আসতে চাইলে নরসিংদীর মরজাল এলাকায় হইতে সিএনজি যোগে খোকন ও তার ব্যবসায়ীক পার্টনার সুমন বিশ্বাসহ আরও কয়েকজন কুলিয়ারচর উপজেলার ফরিদপুর এলাকায় স্লুইচ গেইেটের নিকট এনে কামালকে নৃশংসভাবে খুন করে ব্রহ্মপুত্র নদী সংলগ্ন পতিত জমিতে ফেলে রেখে যায়। পরদিন ৪ সেপ্টেম্বর কুলিয়ারচর থানা পুলিশ অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির লাশ হিসেবে উদ্ধার করে কুলিয়ারচর থানায় একটি মামলা দায়ের করে। কুলিয়ারচর থানার মামলা নং- ৪ (৯) ২০২০। কুলিয়ারচর থানা পুলিশ মামলার রহস্য উদঘাটন করতে ব্যর্থ হওয়ায় অবশেষে গত ৬ অক্টোবর মামলাটি পিবিআই- এ হস্তান্তর করা হয়।

গত ১৮ অক্টোবর নিহত কামালের চাচা হারুন অর রশিদ পিবিআই তদন্তকারী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আজাদ হোসেনের সাথে যোগাযোগ করে নিহত কামালের ছবি দেখে সনাক্ত করে। পিবিআই তথ্য প্রযুক্তি সহায়তায় গত ১৯ অক্টোবর পিবিআই পুলিশ পরিদর্শক মোঃ আজাদ হোসেন অভিযান চালিয়ে খোকন খানের ব্যবসায়ীক পার্টনার কুলিয়ারচর উপজেলার হাপানিয়া গ্রামের মৃত শচিন্দ্র বিশ্বাসের ছেলে সুমন বিশ্বাসকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত সুমন বিশ্বাস আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী প্রদান করে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে।
পিবিআই পুলিশ সুপার মোঃ শাহাদাত হোসেন বলেন, আমরা কামাল হত্যা মামলার মত খুব অল্প সময়ের মধ্যে আরও ৬টি মামলার রহস্য উদঘাটন করতে সক্ষম হব।

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *