গাইবান্ধায় বুদ্ধিজীবী দিবস ২০১৯ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুস্পস্তবক অর্পণ

সরকার লুৎফর রহমান,গাইবান্ধাঃ
১৯৭১ সালের এই দিনে দখলদার পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তার দোসর রাজাকার আল-বদর, আল-শামস সম্মিলিতভাবে বাংলার শ্রেষ্ঠ সন্তান বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করে। স্বাধীনতার পর হতে ৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন হয়ে আসছে।
বুদ্ধিজীবীদের হত্যার ঠিক দুই দিন পর ১৬ ডিসেম্বর জেনারেল নিয়াজির নেতৃত্বাধীন বর্বর পাকিস্তানী বাহিনী আত্মসমর্পণ করে এবং স্বাধীন দেশ হিসেবে বাংলাদেশের অভ্যুদয় ঘটে।
শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণীয় করে রাখার জন্য গাইবান্ধা জেলা ও উপজেলা প্রশাসন র্যালী আলোচনা পুস্পস্তবক অর্পণের মধ্যদিয়ে এ দিনটি পালন করেছে।
গাইবান্ধায় এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন, জনাবা মাহাবুব আরা বেগম গিনি এম.পি মাননীয় হুইপ, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ। অনুষ্ঠানের সভাপতি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন, মোহাম্মদ আব্দুল মতিন জেলা প্রশাসক, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন তৌহিদুল ইসলাম পুলিশ সুপার,আবু বকর সিদ্দিক সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ গাইবান্ধা জেলা শাখা এ্যাড শাহ্‌ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবির মিলন মেয়র, গাইবান্ধা পৌরসভা।
জেলার সাদুল্যাপুর উপজেলায় “কিংশুক সাহিত্য পরিষদ” আয়োজনে শহীদ বুদ্ধিজীবি দিবস উপলক্ষে স্মরণ সভা ও মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক তথ্যচিত্র প্রদর্শণ করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন কিংশুক সাহিত্য পরিষদের সভাপতি প্রভাষক মাহমুদুল হক মিলন।
বক্তব্য রাখেন,উদীচী গাইবান্ধা জেলা সংসদের সভাপতি অধ্যক্ষ জহুরুল কাইয়ুম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা খাজানুর রহমান, উপজেলা আওয়ালীগের সহ-সভাপতি প্রভাষক আব্দুল জলিল, খন্দকার জিল্লুর রহমান, শামসুজ্জোহা প্রামানিক রাঙ্গা, সাদুল্লপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)  মাসুদ রানা, মুক্তিযোদ্ধা নুরুন নবী সরকার তারা, দেলায়ার হোসেন, সাদুল্যাপুর গার্লস ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক হোসনে আরা মুন্সি প্রমূখ। সভাটি পরিচালনা করেন কিংশুক সাহিত্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম রেজা। শেষে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক একটি তথ্যচিত্র প্রদর্শণ করা হয়।
পলাশবাড়ী উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্তর থেকে এক র‌্যালী বের হয়ে সওজ সংলগ্ন বদ্ধভূমিতে যায়। সেখানে বুদ্ধিজীবী স্মরণে পুষ্পস্তপক অর্পণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মেজবাউল হোসেন। এসময় বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ একেএম মোকছেদ চৌধুরী বিদ্যুৎ, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আবু বকর প্রধান, সহ-সভাপতি শহিদুল ইসলাম বাদশা, আলী রেজা গোলাম মোস্তফা,  সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ শামিকুল ইসলাম সরকার লিপন, সহকারী পুলিশ সুপার আসাদুজ্জামান আসাদ, উপজেলা জাসদ সভাপতি নুরুজ্জামান প্রধান, ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রিপন, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুর রহমান,  উপজেলা শ্রমিকলীগ সাধারণ সম্পাদক, মাহামুদুজ্জামান প্রান্ত সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। শেষে শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দেশ জাতির মঙ্গল কামনায় বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন কেন্দ্রীয় মসজিদের পেশ ইমাম  মোস্তাফিজুর রহমান রাজা।
জেলাজুরে প্রতিটি উপজেলায় বুদ্ধিজীবি দিবস পালন হলো এবং আগামী ১৬ ডিসেম্বর উদযাপন উপলক্ষে বিজয় দিবসের সকল প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন ।
সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *