গাইবান্ধা দিনভর বৃষ্টিতে জনজীবন বিপর্যস্ত; ঈদে ঘরমূখো মানুষের ঢল

সরকার লুৎফর রহমান,গাইবান্ধাঃ 
গাইবান্ধা জেলায় ২ জুন রোববার সকাল থেকে অব্যাহত রয়েছে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি। দিনভর টানা বৃষ্টির ফলে জনজীবনে বিপর্যস্থ নেমে এসেছে। সেই সাথে ঈদ পণ্যাদি বিক্রেতাদের ব্যবসা বানিজ্য অনেকটা স্থবির হয়ে পড়েছে। বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া মানুষ ঘর হতে বেড় হচ্ছে না খেটে খাওয়া মানুষরা শ্রম বিক্রি করতে পারছেনা এমন আবহাওয়ার প্রভাব পড়ায় ছিন্নমূল  মানুষরা পড়েছে চরম বেকায়দা। 

ঈদ মার্কেটগুলোতে ক্রেতাদের পদচারণ তেমন  লক্ষণীয় নয়। দোকানিদের আশানুরূপ বিক্রি না হওয়ায় তারা অলস সময় পাড় করছেন। ঢাকা রংপুর মহাসড়কে অটোভ্যান চালক নয়ন জানান, রোববার সকাল থেকে বৃষ্টির ঝড়ছে কিন্তু পেটের তাগিদে গাড়ী নিয়ে রাস্তায় বের হলেও যাত্রী অনেক কম। ঈদের আগে পরিবার পরিজনের বাড়তি খরচ যোগাতে হিমসিম খাচ্ছি। পলাশবাড়ীতে টেইলাস্ মালিক বুদু মিয়া জানান,আকাশ খারাপ হওয়ার সাথে বিদ্যুৎ উধাও হয় সে সময় কারিগর বসে থাকে ইহাতে পোশাক ডেলিভারি দেওয়ায় বিলম্ব হচ্ছে ফলে নতুন কোন অর্ডার নেওয়া হচ্ছে না।

রংপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সাদুল্লাপুর উপজেলার সাব জোনাল অফিসের এজিএম মেহেদী হাসান তালুকদার বলেন, বেশ কিছু দিন ধরে ঝড় বৃষ্টিপাতে বিভিন্ন সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এর সংস্কার কাজ চলায় বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ রয়েছে। কখন পূর্নাঙ্গ বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে এর সদুত্তোর দিতে পারননি তিনি।

পলাশবাড়ী উপজেলা সদরে বিদ্যুৎ সরবরাহ বৈরি অাবহাওয়া হলেও অনেকটা ভালো তবে গ্রাম পর্যায়ের খবর পাওয়া জায়নি। এ বিষয়ে পলাশবাড়ী পিডিবি আবাসিক প্রকৌশলিকে ফোনে পাওয়া যায়নি। এমন বৃষ্টিভরা দিনে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ বনাম সাউথ আফ্রিকার ক্রিকেট খেলাটি টিভি ও মোবাইলে সরাসরি দর্শন ও আমেজে সময় পার করছে ক্রিকেট প্রেমিরা। 

আঞ্চলিক মিনিবাস, লেগুনা কম থাকলেও ঢাকা ও দেশের বিভিন্ন প্রান্ত হতে মানুষ বাড়ীতে ছুটে আসছে ট্রেন ও বাসে। বৈরি আবহাওয়ার ফলে জেলা শহর হতে বাড়ীর টানে গ্রামে ছুটতে অনেকটা বিপাকে পড়েছে এ অনাকাঙ্ক্ষিত বৃষ্টিতে। বিকেলে কিছুক্ষণের জন্য সূর্যের আলো পড়েছিলো তবে তা স্থায়ী হয়নি ফলে আবহাওয়া অনেকটা শীতল। এ রিপোর্ট লেখা পর্যান্ত (৯:১০ মি) টিপটপ বৃষ্টি ঝড়ছে।
সময়নিউজ২৪.কম/ বি এম এম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *