ঘুর্নিঝড় ‘ফণি’ সুপার সাইক্লোনে রুপ নিয়ে ধেয়ে আসছে মোংলা সহ সুন্দরবন উপকুলের মানুষের মধ্যে অজানা আতংক

মোংলা প্রতিনিধি
বঙ্গোপসাগরে সৃস্ট ঘুর্নি ঝড় ‘ফণি’ সুপার সাইক্লোনে রুপ নিয়ে এগিয়ে আসার খবরে মোংলা সহ সুন্দরবন উপকুলের মানুষের অজানা আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। তবে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে মোংলা সহ আশপাশের এলাকায় কখনও রোদুজ্জাল আাবার মেঘলা আকাশ রয়েছে। এ ছাড়া ভ্যাবসা গরম থেমে থেমে দমকা বাতাস ও বয়ে যাচ্ছে।

জনসাধারনকে নিরাপদে আশ্রয় নিতে দফায় দফায় ৭ নম্বর বিপদ সংকেতের বিষেশ বুলেটিন প্রচার করা হচ্ছে মোংলা পোট পৌর সভার ডিজিটাল কেন্দ্র থেকে। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৬টি ইউনিয়নে ৭৮টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। উপজেলা ও পৌর সভা পক্ষ থেক খোলা হয়েছে পৃথক দুটি কন্টল রুম।

মোংলা উপজেলা প্রকল্প বাস্তায়ন কর্মকর্তা নাহিদুজ্জামান জানান,উপজেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারির ছুটি বাতিল করা হয়েছে। মাঠে প্রস্তুত রয়েছেন সিপিপি’র ৬৬টি ইউনিটের ৯৯০ জন স্বোচ্ছা সেবক ।

এ দিকে মোংলা বন্দরে অবস্থানরত সকল সকল বানিজ্যিক জাহাজের পণ্য খালাস কাজ আজ দুপুর থেকে বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এ সকল জাহাজের শ্রমিকদের কিনারে নামিয়ে আনে শুরু করেছে শ্রমিক নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান গুলো।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার দুরুল হুদা জানান, ঘুর্নি ঝড় মোকাবেলায় বৃহস্প্রতিবার বিকাল ৩ টায় বন্দর কর্তৃপক্ষের জরুরুী বৈঠক ডাকা অনুষ্ঠিত হয়। এ বৈঠকে হারবার
মাস্টারকে আহবায়ক করে ১৪ সদস্যের মনিটরিং কমিটি ও একটি কন্টোল রুম খোলা হয়েছে।

নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়েছে বন্দরের নিজস্ব ৪১ টি নৌযান । এ ছাড়া পন্য বোঝাই দেশী-বিদেশী
বানিজ্যিক জাহাজ সমূহকে ইতিমধ্যে বেতার বার্তায় সতর্ক থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

বন্দরের হারবার বিভাগ সূত্র জানায়, বর্তমানে বন্দর চ্যানেলে ১৬টি দেশী বিদেশী বানিজ্যিক জাহাজ রয়েছে। আরও প্রায় ২শতাধিক লাইটার জাহাজ রয়েছে পশুর নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে। এ দিকে ঘুর্নিঝড়ের আতংক এবং নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে রয়েছে পশুর নদীর তীরবর্তী চিলা,চাঁদপাই ও বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়েনের ২৫টি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ। ঘুর্নিঝড় ও বিপদ সংকেত জারি হওয়ার পর পরই সমুদ্রগামী ট্রলার ও সুন্দরবনের শত শত জেলে নৌকা ও জাল নিয়ে নিরাপদ আশ্রয় ফিরেছে বলে জানিয়েছেন সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের ডিএফও হাসান মাহামুদ।

এ ছাড়া জলোচ্ছ্বাস ও ঘুর্নিঝড় নিয়ে বনরক্ষীদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান।

সময়নিউজ২৪.কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *