চাকুরীর প্রলোভনে তরুনীকে ধর্ষণ : ধর্ষক যুবক আটক

মোংলা প্রতিনিধি:

চাকুরীর দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে নিজ বাড়িতে নিয়ে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে মোংলার উপজেলার আন্ধারিয়া গ্রাম থেকে ধর্ষক ওই যুবককে আটক করেছে মোংলা থানা পুলিশ। শুক্রবার সন্ধ্যায় নিজ এলাকা থেকে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে পুলিশের একটি দল। থানায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান,বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার শ্রীফলতলা গ্রামের এক তরুনীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে মোংলা উপজেলা সুন্দরবন ইউনিয়নের আন্ধারিয়া গ্রামের বাসিন্দা তরিকুল শেখের পুত্র জুয়েল শেখ (২০)। এরপর ওই তরুনীকে ভালো চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে মোংলায় নিজ বাড়ীতে আসতে বলেন জুয়েল। গত ৩ মার্চ বিকেলে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে জুয়েল শেখের বাড়ীতে যায় তরুনী। এরপর রাতে তাকে আটকে রেখে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে জুয়েল শেখ। পরে ৪ মার্চ সকালে এক পরিচিত ব্যক্তির সহযোগীতায় বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি হন ধর্ষণের শিকার ওই তরুনী। ওই দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তরুনী মোবাইল ফোনে বিষয়টি বাগেরহাট জেলা পুলিশ সুপার একেএম শহিদুল হককে জানান। তাৎক্ষনিকভাবে হাসপাতালে তার জন্য খাবার ও কাপড় পাঠান এসপি নিজে। পাশবিক নির্যাতনের শিকার ওই তরুনীকে সকল সহায়তার আশ^াস দেয় জেলা পুলিশ। ওই তরুনীর দেয়া তথ্য মতে পুলিশ সুপারের নির্দেশে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করে ৩ ঘন্টার মধ্যে ধর্ষক জুয়েল শেখ’কে মোংলা নিজ এলাকা থেকে আটক করতে সক্ষম হয় মোংলা থানা পুলিশ।

শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ধর্ষক জুয়েল শেখ মোংলা থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে এবং তাকে জিজ্ঞাসাবদ করা হচ্ছে। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি ইকবাল বাহার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *