জুমার দিনের বিশেষ আমল সমূহ

Jetpack

মাওলানা আবদুল আউয়াল ফয়সাল বিন তাহেরী:

পবিত্র জুমার দিন। অন্যান্য দিনের চাইতে জুমার দিনই অত্যন্ত ফজিলতপূর্ণ। পবিত্র কোরআন ও হাদিসে জুমার দিনের বহু ফজিলত বর্ণিত হয়েছে।

সাত দিনের মধ্যে জুমাবার তথা শুক্রবারকে বিশেষ মর্যাদায় ভূষিত করা হয়েছে। আল্লাহ রাব্বুল আলামিন মুসলিম সমাজে জুমার দিনটিকে পৃথিবীর অন্যতম তাৎপর্যবহ দিবস হিসেবে বিশেষ মর্যাদায় ভূষিত করেছেন। জুমা নামে পবিত্র কুরআনে একটি স্বতন্ত্র সূরা নাজিল হয়েছে। মহান আল্লাহ বলেছেন, ‘অতঃপর নামায সমাপ্ত হলে তোমরা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড় এবং আল্লাহর অনুগ্রহ সন্ধান কর ও আল্লাহকে অধিকরূপে স্মরণ কর; যাতে তোমরা সফলকাম হও।’ (সূরা জুমুআ, আয়াত : ১০)

জুমার দিনের বিশেষ আমল সমূহ:

১. গোসল করা।

২. ফজরের ফরজ নামাজে সূরা সাজদা ও সূরা দাহর/ইনসান তিলাওয়াত করা।

৩. উত্তম পোশা পরা।

৪. সুগন্ধি ব্যবহার করা।

৫. আগেভাগে মসজিদে যাওয়া।

৬. সূরা কাহফ তেলাওয়াত করা।

৭. মসজিদে গিয়ে কমপক্ষে দুই রাকাত সুন্নত আদায় করা।

৮. ইমামের কাছাকাছি গিয়ে বসা।

৯. মনযোগ দিয়ে খুৎবা শোনা। খুৎবা চলাকালে কোনো কথা না বলা।

১০. দুই খুৎবার মাঝের সময়ে বেশি বেশি দুয়া করা।

১১. অন্য সময়ে দুয়া করা। কারণ এদিন দু’আ কবুল হয়।

১৩. রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ওপর সারাদিন যথাসম্ভব বেশি দরূদ পাঠ করা।

সময় নিউজ২৪.কম/এএসআর 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *