তিস্তার চরাঞ্চেলের ছিঁটা পেঁয়াজ এখন গাইবান্ধা বাজারে।। মরা তিস্তা চরাঞ্চলে পেঁয়াজ চাষাবাদের অপার সম্ভাবনা

সরকার লুৎফর রহমান,গাইবান্ধাঃ
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার তিস্তার চরাঞ্চলের ছিঁটা বা পাতা পেঁয়াজ এখন বাজারে আসতে শুরু করেছে।  গ্রাহকের অনেকটা চাহিদা মেটাতে সক্ষম  হচ্ছে। মরা তিস্তার চরাঞ্চল এখন পেঁয়াজ চাষাবাদের জন্য অপার সম্ভবনা এবং পেঁয়াজ চাষাবাদের প্রকল্প তৈরি করে আগাম জাতের পেঁয়াজ বাজারজাত করা সম্ভব।
ঠিক যে মহুর্তে গোটা দেশে পেঁয়াজবাজি নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে সে মহুর্তে উপজেলার বিভিন্ন বাজারে দেখা দিয়েছে চরাঞ্চলের ছিঁটা পেঁয়াজ। যা সাধারণ গ্রাহকদের অনেকটা চাহিদা মেটাচ্ছে।
বর্তমান বাজারে তিনি প্রতি কেজি পাতা পেঁয়াজ ৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার তারাপুর, বেলকা হরিপুর, চন্ডিপুর, শ্রীপুর ও কাপাসিয়া ইউনিয়নের উপর দিয়ে প্রবাহিত তিস্তার বিভিন্ন চরাঞ্চল ঘুরে ফিরে দেখা গেছে ছিঁটা পেঁয়াজের চাষাবাদ। উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা গেছে চলতি মৌসুমে চরাঞ্চলে ১৫০ হেক্টর জমিতে ছিঁটা পেঁয়াজের চাষাবাদ হয়েছে। সুন্দরগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী শামীম মিয়া জানান গত ২ সপ্তাহ হতে চরের ছিঁটা পেঁয়াজ বাজারের আসতে শুরু করেছে। বর্তমানে খুচরা বিক্রি হচ্ছে কেজি ৭০/৮০ টাকায় টাকা। তবে এলসি ও দেশি বিক্রি হচ্ছে ১৫০ হতে ২০০ টাকা দরে। ছিঁটা পেঁয়াজ অনেটা চাহিদা পুরণ করছে। সুন্দরগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সৈয়দ রেজা-ই মাহমুদ জানান, চরাঞ্চলে বর্তমানে বিভিন্ন ফসল চাষাবাদ হচ্ছে। এরমধ্যে ছিঁটা বা পাতা পেঁয়াজ রয়েছে। চরের মাটি ছিঁটা পেঁয়াজ চাষাবাদের জন্য অনেক উপযোগি। গ্রাহকদের চাহিদা মেটাতে অনেকটা সহায়ক হিসাবে কাজ করবে ছিঁটা পেঁয়াজ।
সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *