দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আনা অপহৃত ১০ শ্রমদাসকে দুবলার চর থেকে উদ্ধার  এক অপহরনকারী আটক

 Hostens.com - A home for your website

মোংলা প্রতিনিধিঃ

দেশের বিভিন্ন অ ল থেকে অপহরন করে আনা ১০ কিশোর শ্রমদাসকে উদ্ধার করেছে মোংলা কোষ্টগার্ড। শুক্রবার গভির রাতে বঙ্গোপসাগর পাড়ে সুন্দরবন দুবলারচরের আলোরকোল থেকে এসকল কিশোরদের উদ্ধার করা হয়েছে।

এ সময় অপহরনকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য মোঃ লেদু মিয়া নামক একজন কে আটক করেছে কোষ্টগার্ড সদস্যরা। কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের নির্বাহী কর্মকর্তা লেঃ কর্মান্ডার ইফতেখার হোসেন জানান, যখন প্রথম থেকে সাগরপাড়ে দুবলার চরে শুটকি আহরনের জন্য মহজন ও বহদ্দররা জেলেদের সেখানে নিয়ে কাজ করাতো।

সেই সময় শুনেছি মানুষদের জোরপুর্বক আটকিয়ে রেখে কাজ করাতো। সেখানে অপ্রপ্ত বয়স্ক শিশু কিশোরদের উপর নির্য়াতন চালানো হতো কিন্ত প্রশাসনের কঠোর নজরদারীতে সে সব বন্ধ হয়েছিল।

প্রতি বছর নভেম্বর মাস থেকে ৭ মাসের জন্য দুবলারচরসহ ৫টি সাগর চরে শুটকি তৈরীর জন্য দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে জেলে মহাজন এখানে ব্যাবসা করার জন্য আসে।

এ বছরও ১ নভেম্বর দুবরার চরের আলোরকোলসহ কয়েকটি চরে জেলেরা সেখানে গিয়ে মাছ আহরন শুরু করেছে। তিনি আরো জানান, সাগর থেকে আহরিত মাছ শুটকি করার জন্য দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে সেখানে চট্ট্রগ্রাম, সিলেট, কিশোরগঞ্জ, কুষ্টিয়া, হবিগঞ্জ, চাদপুর ও নোয়াখালীসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে বেশী বেতনে চাকরী প্রলোভন দেখিয়ে নানা ভাবে তাদের অপহরন করা হয়।

এর পর তাদের নিয়ে আসা হয় সুন্দরবনের দুবলাসহ বিভিন্ন চরে। সেখানে তাদের দিয়ে জোর পূর্বক শুটকী আহরন কাজে নিয়োজিত করে আটকিয়ে রাখা হয়। চরে শুটকি তৈরীর কাজ করতে না চাইলে তাদের উপর চালানো হয় শারিরিক ও মানষিক নির্যাতন।

এমন গোপন খবরের সুত্রধরে শুক্রবার রাতে অভিযান চালিয়ে অপহরন চক্রের সদস্য লেদুমিয়াকে আটক করে কোষ্টগার্ড। জিজ্ঞাবাদের পরে তার স্বীকার উক্তি মোতাবেক কয়েকটি সাভার (মহাজনদের বা বহদ্দারের ঘর) থেকে ১০ জন কিশোরকে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া অধিকাংশ কিশোরের শরীরে আসংখ্য আঘাতের চিহৃ পাওয়া জায়।

অপহরকারীদের হাত থেকে উদ্ধার হওয়া কিশোরেরা হচ্ছে কিশোরগঞ্জ বাইজিতপুর এলাকার নুর উদ্দিন’র ছেলে মোঃ রেনু মিয়া (১৭), চাদঁপুর জেলার হাজীগঞ্জ বালিয়া গ্রামের মৃত্য আক্কাস আলীর ছেলে মোঃ মানিক হোসেন (১৬), ময়মনসিংহ জেলার গফারগাও মোল্লা পাড়ার মৃত্য কিতাব আলীর ছেলে মোঃ হৃদয় হোসেন (২৪), কিশোরগঞ্জ জেলার হোসেনপুর হালিমা গ্রামের আব্দুল মোতারেব’র ছেলে টুটুল মিয়া (১৭), হবিগঞ্জ জেলার মংলা বাজার শিববাড়ী গ্রামের মনির হোসেন’র ছেলে মোঃ আক্তার হোসেন (১৩), নেসায়াখালী সেনবাগ থানার জারু মিয়া বাড়ীর মোঃ জসিম উদ্দিন’র ছেলে মোঃ আল আমিন (১৮), চট্ট্রগ্রাম জেলার কোতয়ালী চিটাগাও গ্রামের আঃ খালেক’র ছেলে মোঃ আমির হোসেন (১৭), ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দার বেড়–য়া গ্রামের মোখলেছুর রহমানের ছেলে রিমন (১৭), নোয়াখালী জেলার চন্দ্রগঞ্জের লতিপুর গ্রামের আব্দুল মাখে’র ছেলে মোঃ আরিফ (১৬) ও কুষ্টিয়া জেলার কুষ্টিয়া শেখপাড়া গ্রামের কচির উদ্দিনের ছেলে মোঃ পারভেজ (১৭) কে উদ্ধার করা হয়েছে।

অপহরনকারী লেদু মিয়াসহ উদ্ধারকৃত কিশোরদের শরণখোলা থানায় হস্তানর করা হয়েছে। এসময় কোষ্টগার্ডের অপারেশন কর্মকর্তা লে. আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, আমাদের অভিযানে ১০জন শ্রমদাস হিসেবে কিশোরদের উদ্ধার করা হয়েছে।

দুবলার চরে শুটকি পল্লী আমাদের নজরদারীতে রয়েছে, আমাদের এখতিয়ারভূক্ত এলাকাসমূহে আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রন ও জননিরাপত্তার পাশাপাশি সুন্দরবনে শিশুশ্রম ও শ্রমদাস দমনে কোস্ট গার্ডের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানায় এ কর্মকর্তা।
Hostens.com - A home for your website

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *