দেশে চলমান দুর্নীতি নিয়ে সরকারকে যা বললেন ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক:

সরকারের দুর্নীতি ও লুটপাটের কারণেই দেশের কৃষিখাত ধ্বংসের মুখে মন্তব্য করে ফখরুল বলেন, সরকারের জবাবদিহিতা নেই বলেই দেশজুড়ে দুর্নীতি ও নৈরাজ্য চলছে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, মেগা প্রজেক্টের পাশাপাশি সব খাতই দুর্নীতিতে নিমজ্জিত। সরকারের দুর্নীতির কারণে কৃষকসহ সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। সমস্যা সমাধানে গণপ্রতিনিধিত্বশীল সরকার প্রয়োজন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, সরকার ধান/চাল সংগ্রহের মাধ্যমে দলীয় ব্যবসায়ী চালকল মালিকদের মুনাফা পাইয়ে দিচ্ছে। বাজার থেকে কম মূল্যে ধান কিনে চালকল মালিকরা চাল তৈরি করে সরকারের কাছে বিক্রি করে প্রতি কেজিতে মুনাফা করছে ১০ টাকা। আর কৃষক তার জমিতে উৎপাদিত ধান বাজারে বিক্রি করে কেজি প্রতি লোকসান গুনছে ১০/১২ টাকা।

তিনি আরও বলেন, গত বছরের উৎপাদনকে হিসেবে নিলে বোরো ধানের উৎপাদন হবে প্রায় ২ কোটি মেট্রিক টন। আর সরকার সংগ্রহ করবে মাত্র ১৩ লাখ টন, যা উৎপাদনের মাত্র ৬.৫ শতাংশ। আমাদের দাবি ধান অথবা চাল সংগ্রহের পরিমাণ কমপক্ষে বোরো উৎপাদনের ১৫ শতাংশ করা হোক।

মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমানে ব্যাংক ব্যবস্থায় খেলাপি ঋণের পরিমাণ প্রায় এক লাখ কোটি টাকা। এই খেলাপি ঋণ গ্রহীতাদের জন্য সরকার বিশেষ ছাড় দিয়েছে। যদিও এই ছাড় মহামান্য হাইকোর্ট আটকে দিয়েছে। শনিবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি জানান।

সময়নিউজ২৪.কম/ এ এস আর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *