নওগাঁর সড়ক গুলোতে বেপরোয়াভাবে চার্জার চালিত রিক্সা ও ভ্যানগাড়ী সড়ক দূঃর্ঘটনা ও বিদ্যুৎ সংকটের আশংকা

 Hostens.com - A home for your website

মোঃ আককাস আলী, নওগাঁ ।।

একদিকে বিদ্যুত সংকট সৃষ্টি হচ্ছে অন্যদিকে বাড়ছে দূরঘর্টনা। নওগাঁর সড়ক গুলোতে দ্রুত গতীতে বেপরোয়াভাবে চলাচল করছে স্থানিয়ভাবে তৈরীকৃত বিদ্যুতের সাহায্যে ব্যাটারী দ্বারা চালিত রিক্রা ও ভ্যান গাড়ী।

প্রশাসনিক তেমন কোন বাধাঁনিষেধ না থাকায় যত্রতত্র গড়ে তোলা হচ্চে ঐ সব রিক্স ও গাড়ী তৈরির কারখানা। শুরুতেই এসব যানবাহনের বে-পরোয়া চলাচল ও তৈরি ব্যাপারে প্রশাসন আশু পদক্ষেপ না নিলে একপর্যায়ে ব্যাপকহারে এ অবৈধ্য যানবাহন বৃদ্ধি পাবে এবং সেইসাথে বাড়বে সড়ক দূর্ঘটনা বলে সচেতন মহলের ধারনা।

সুত্রমতে, স্থানিয়ভাবে তৈরীকৃত বিদ্যুতের সাহায্যে ব্যাটারী দ্বারা চালিত রিক্রা ও ভ্যান গাড়ী নওগাঁ জেলা সদর সহ জেলার ১১ টি উপজেলার বিভিন্ন সড়ক ও মহাসড়কে প্রতিনিয়ত বেপরোয়াভাবে চলাচল করছে।

প্রশাসনিকভাবে চলাচলে তেমন কোন বাধাঁ নিষেধ না থাকায় দিনদিন এসব যানবাহনের সংখ্যা সড়ক ও মহাসড়কে বৃদ্ধি পাচ্ছে ব্যাপকহারে। আর অভিজ্ঞতাহীন চালকরা বেপরোয়াভাবে দূরগতিতে চার্জার চালিত এসব রিক্সা ও ভ্যানগাড়ী চালাতে গিয়ে প্রতিনিয়ত ঘটাঁচ্ছেন সড়ক দূর্ঘটনা।

সুত্র আরো জানায়, তিন চাকার এ যানবাহনের নেই কোন ইমারজেন্সি ব্রেক বা নিয়ন্ত্রন ব্যবস্থা তারপর এসব যানবাহনের চালকরা একই সাথে ৪ জন থেকে ৬/৭ জন পর্যন্ত যাত্রী তুলে নওগাঁ সদর সহ জেলার ১১ টি উপজেলার বিভিন্ন সড়ক ও মহাসড়কে দ্রত-গতিতে বেপরোয়াভাবে চালিয়ে যাচ্ছেন এ যানবাহন। আর দ্রুত গতি ও বেপরোয়াভাবে চালাতে গিয়ে প্রতিনিয়ত ছোটখাট দূর্ঘটনা ঘটছে অহরহ ।

অপরদিকে দিনদিন এ যানবাহনের চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় নওগাঁ সদর উপজেলার বর্ষাইল, মহাদেবপুর উপজেলার নওহাটা পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার বেলঘরিয়া-স্বরুপপুর মোড় ও কদমতলি মোড় সহ জেলার বেশ কয়েকটি স্থানে বিদ্যুতের সাহায্যে ব্যাটারী দ্বারা চালিত এসব রিক্স ও ভ্যানগাড়ী তৈরীর কারখানা গড়ে উঠেছে।

এব্যাপারে গতকাল বুধবার সকালে নওহাটা বাজারে চার্জার চালিত৬/৭ জন ভ্যান চালকের সাথে আলাপকালে তারা জানান, পেডেল গাড়ী চালিয়ে দিনে যা উপার্জন করতেন বর্তমানে চার্জার চালিয়ে তার ২ থেকে ৩ গুন বেশি টাকা উপার্জন করছি আমরা। এসময় তারা আরো জানান, সহজ কিস্তিতে কারখানার মালিকরা গাড়ী দেয়ায় তারা পূর্বের পেডেল চালিত গাড়ী বিক্রি করে এগাড়ী কিনেছেন।

এসব ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহকালে জানাগেছে, ইতিমধ্যে তানিয়া, রিভা, নিউ সরদার পরিবহন ও চৌধুরী এন্টারপ্রাইজ নাম সহ বিভিন্ন কারখানায় তৈরীকৃত চার্জার ভ্যান ও রিক্স সড়কগুলোতে চলাচল করছে।

এব্যাপারে বেলঘরিয়া স্বরুপপুর মোড়ের নিউ সরদার কারখানার খোঁজে গিয়ে দেখা গেলো এক ভিন্নচিত্র, একটি বয়লারের ধানচাতালের গোডাউন ৪০ হাজার টাকা সিকরিটি ও মাসিক ৮ শত টাকা ভাড়ার বিনিময়ে নিয়ে নওগাঁ সদর উপজেলার বালুভরা গ্রামের হাফিজুর রহমান ও তার ভাইরা স্বরুপপুর গ্রামের ওবায়দুর রহমান গড়ে তুলেছেন চার্জার রিক্স ও ভ্যান গাড়ী তৈরীর কারখানা।

এসময় কারখানার মালিক হাফিজুর রহমান জানান, তারা প্রথমে প্রেডেল চালিত গাড়ী তৈরী ও বিক্রি করতো কিন্তু বর্তমানে চার্জারের চাহিদা বারায় তারাও অন্নের দেখাদেখী চার্জার গাড়ী তৈরী করছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, সরকারের কোন অনুমোদন আমাদের নেউ তবে এব্যাপারে প্রশাসনের কোন প্রকার নিষেদাঙ্গা বা কোন বাধাঁ ও আসেনি।

তিনি আরো জানান, এ গাড়ী চালকরা সাধারনত গরীব হওয়ায় এবং অনান্ন কারখানার মালিকরা কিস্তির মাধ্যমে দেয়ার কারনে আমরাও সহজ ২০টি কিস্তির মাধ্যমে গাড়ী দিয়ে থাকি বলেও তিনি জানিয়েছেন। এব্যাপারে আরো তথ্যসংগ্রহকালে জানাগেছে, মালিকরা সহজ কিস্তির মাধ্যমে রিক্স ও ভ্যানগাড়ী সরবরাহ করার কারনে ধীর গতিতে চলা প্রেডেল চালিত রিক্স ও ভান চালকরা তাদের পূর্বের গাড়ী বাদদিয়ে চার্জার চালিত গাড়ী কিনতে ঝুকে পড়ছেন।

আর এসুযোগে সহজ কিস্তির নামে নির্ধারিত মূল্যের উপর আরো ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা বাড়তি নিয়ে রাতারাতি কলাগাছ বনে যাচ্ছেন কারখানার মালিকরা। শুরুতেই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ না নিলে দিনদিন এ যানবাহনের সংখ্যা আরো ব্যাপকহারে বেড়ে যাবে।

ফলে একদিকে বিদ্যুত সংকটের সৃষ্টি হবে অন্নদিকে বাড়বে সড়ক দূর্ঘটনা বলে ধারনা পোষন করছেন সচেতন জনসাধারন।
Hostens.com - A home for your website

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *