//pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js


নওগাঁয় খাবারের টাকা দেওয়ার লোভ দেখিয়ে শিশু ধর্ষণ

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন,স্টাফ রিপোর্টারঃ
নওগাঁয় খাবারের জন্য টাকা দেওয়ার লোভ দেখিয়ে প্রথম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিশু শিক্ষার্থী কে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। শিশু ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার ২৯ শে নভেম্বর নওগাঁর আত্রাই উপজেলায়।অভিযুক্ত আফাজ উদ্দিন (৬০) আত্রাই উপজেলা সদরের রামচন্দ্রবাট্টি গ্রামের মৃত সখিমুদ্দিনের ছেলে ও ভিকটিম শিশুর সম্পর্কে বড় আব্বা।
মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে বাড়ির পাশে ভিকটিম শিশু শিক্ষার্থী ও তার এক বান্ধবী খেলা করছিল। এসময় আফাজ উদ্দিন শিশুটিকে খাওয়ার জন্য টাকা দেওয়ার লোভ দেখিয়ে নিজ বাড়িতে নিয়ে যায় এবং বাড়িতে তার স্ত্রী না থাকার সুযোগে শিশুটিকে ধর্ষণ করেন। শিশুর বান্ধবী ভিকটিম শিশুর মাকে জানালে শিশুর মা অভিযুক্তের বাড়ির দিকে যাওয়ার মহূর্তে ভিকটিম শিশু অভিযুক্ত এর বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসে। তাকে বাড়ি নিয়ে আসার পর তার মা জানতে চাইলে শিশুটি জানায়, বড় আব্বা জিনিস কিনে দেওয়ার টাকা দিবে বলে তার বাড়িতে নিয়ে গিয়ে খারাপ কাজ করেছে। এরপর শিশুটিকে উপজেলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে নওগাঁ সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।
ভিকটিম শিশুর বাবা বলেন, ঘটনাটি জানার পর আমি অবাক হয়ে গিয়েছি। আমার মেয়ে তো তারও মেয়ের মতো। সে কিভাবে এমন জঘন্য কাজ করতে পারলো আমার ছোট্ট মেয়ের সাথে। এব্যাপারে আমি থানায় মামলা করেছি। দ্রুত তাকে গ্রেফতার করে কঠিন শাস্তি দেওয়া হোক।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রোকসানা হ্যাপি বলেন, প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
আত্রাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তারেকুর রহমান সরকার বলেন, এ ঘটনায় শিশুর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। বর্তমানে অভিযুক্ত পলাতক রয়েছে। তবে অভিযুক্তকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ তৎপর রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


//pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js
%d bloggers like this: