নওগাঁয় মাদক সেবী কর্তৃক যুবককে কুপিয়ে হত্যা

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রির্পোটারঃ
নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলায় মাদক সেবনের কথা মাদক সেবীর বাবাকে বলে দেওয়ায় মাদকা সেবী কর্তৃক প্রতিবেশী এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার সকালে ধামুরহাট উপজেলার পূর্ব তাহেরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মাদকাসক্ত রাজু হোসেনকে (২০) কে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ।খুন হওয়া যুবকের নাম মোস্তফা কামাল (৩০)। তিনি পূর্ব তাহেরপুর গ্রামের আবদুস সামাদের ছেলে। গ্রেপ্তার রাজু হোসেন একই গ্রামের এনামুল হোসেনের ছেলে।
স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রাজু হোসেন কিছুদিন ধরে গাঁজা, ফেনসিডিল সহ বিভিন্ন ধরনের মাদকে আসক্ত হয়ে পড়েন। বিষয়টি তাঁর পরিবারের কেউ জানতেন না। গত বুধবার রাজুর মাদক সেবনের বিষয়টি জানতে পেরে প্রতিবেশী মোস্তফা রহমান তাঁর (রাজুর) বাবাকে জানান। বিষয়টি জানার পর রাজুর বাবা তাঁকে বকাঝকা করেন। এর জের ধরে রাজু প্রতিবেশী মোস্তফার ওপর ক্ষিপ্ত হন এবং তাঁকে দেখে নেবে বলে গতকাল বৃহস্পতিবার প্রকাশ্যে হুমকি দেন। আজ সকাল ১০টার দিকে মোস্তফা পার্শ্ববর্তী রামপুরা বাজার থেকে বাজার করে পায়ে হেঁটে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় রাজু ধারালো হাঁসুয়া দিয়ে পেছন থেকে তাঁর মাথায় আঘাত করেন। পরে পিঠে আরও কয়েকটি কোপ দিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে যান রাজু। হাঁসুয়ার আঘাতে মোস্তফা মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে স্থানীয় লোকজন ও স্বজনেরা তাঁকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে তাঁর মৃত্যু হয়।ঘটনার পর রাজু গ্রাম থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পরে তাঁকে পার্শ্ববতী জয়পুরহাট সদর উপজেলার পলাশতলী বাজার থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
ধামইরহাট থানার ওসি আবদুল মমিন জানান, এ ঘটনায় নিহত ব্যক্তির ভাই মাহমুদ হোসেন বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন। পুলিশের কাছে রাজু হত্যার ঘটনা স্বীকার করেছেন। গ্রেপ্তার রাজুকে আদালতে নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *