নওগাঁ শহরে দিন-দুপুরে বাড়িতে ঢুকে গৃহবধুকে কুপিয়ে হত্যা

শহিদুল ইসলাম নওগাঁ জেলা প্রতিনিধিঃ

নওগাঁ শহরে প্রকাশ্য দিবালোকে এক গৃহবধুকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুবৃত্তরা। নওগাঁ শহরের পার-নওগাঁ ধোপাপাড়া পারাপার ঘাট সংলগ্ন মহল্লায় এই নৃশংস হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটেছে আজ বুধবার। ডাকাতির উদ্দেশ্যে এই হত্যাকেন্ডর ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করছে পুলিশ।

পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই মহল্লায় নিজস্ব বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে সিলভার ব্যবসায়ী ইসরাইল তাঁর স্ত্রী মোছাঃ ফাহিমা বেগমকে নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন। তাঁদের কোন সন্তান ছিলনা।

কাজেই ইসরাইল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চলে গেলে স্ত্রী একাই বাড়িতে থাকেন। দিনের একটি নির্দিষ্ট সময় কাজের মেয়ে তার সাথে থাকে। আজ বুধবার স্বামী ইসরাইল সকাল অনুমান ৯ টার দিকে নওগাঁ শহরের পুরাতন সোনালী ব্যাংক এলাকায় অবস্থিত তাঁর সিলভারের দোকানে চলে যান। অনুমান সাড়ে ১২টার দিকে কাজের মেয়ে ওই বাসায় এসে ফাহিমা বেগমকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার করতে থাকে।

তার মাথায় ধারালো কোন অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। চিৎকার শুনে আশে পাশের প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন।
সংবাদ পেয়ে স্বামী ইসরাইলও আসেন। সাথে সাথে তাকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
ধারনা করা হচ্ছে সকাল ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে হত্যাকান্ডের এই ঘটনাটি সংঘটিত হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

সংবাদ পেয়ে নওগাঁ’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লিমন রায় এবং সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ সোহরাওয়ার্দি হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বিকাল সাড়ে ৩টায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লিমন রায় বলেছেন এখনও তদন্ত চলছে। প্রাথমিক ভাবে ডাকাতির ঘটনা বলে মনে হচ্ছে এবং একই সাথে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সংবাদ লেখার সময় পর্যন্ত পুলিশ কাউকে এহত্যাকান্ডর ঘটনায় আটক বা গ্রেফতার করতে পারেনি।

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *