নওগায় চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রীকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগে থানায় মামলা

মো.আককাস আলী,নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি :-

নওগাঁয় চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রীকে শ্লীলতাহানীর ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারপিটে একজন আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ২৫ সেপ্টম্বর শুক্রবার সকাল ১০টায় উপজেলার আধাইপুর ইউপির সেনপাড়া গ্রামে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক তোলপার সৃষ্টি হয়েছে। তথ্য সংগ্রহকালে জানাযায় উপজেলার সেনপাড়া গ্রামের জনৈক ব্যক্তির বাড়িতে ঢুকে কেউ বাসায় না থাকায় প্রতিবেশী সামসুল আলম (৫৮) ঐ বাড়ির শিশুকন্যা সেনপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী করে এবং ঐ ছাত্রীকে বলে তোকে খুব ভাল লাগে। ঐ ছাত্রীকে সে উত্তক্ত করতে লাগলে ঐ ছাত্রী ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেয়। কিছুপর ঐ ছাত্রীর দাদী ও মা বাড়ীতে আসলে দরজা খুলে বের হয়ে এসে ঘটনাটি তার দাদী ও মাকে জানায়। বাড়ীতে ছাত্রীর দাদী ও মা আসার পূর্বেই সামসুল সটকে পড়ে। এর ঘটনার জেরধরে ঐদিন সন্ধায় নতুন ব্রিজের পূর্ব পার্শ্বে সামসুলকে বসে থাকা দেখে ঐ ছাত্রীর পরিবারের লোকজন সামসুলকে মারপিট করে। সামসুলকে মারতে দেখে অদুরে দাড়িয়ে থাকা সামসুলের ভাগিনারা ছুটে এসে ঐ ছাত্রীর পক্ষের লোকজনকে মারপিট করে।

এসময় ছাত্রীর বাবা হাসান আলীর ভাতিজা রুহল আমিনকে আহত অবস্থায় বদলগাছী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। বিষয়টি নিয়ে গ্রামে শালিস দরবার শেষে সমঝোতা না হওয়ায় সোমবার ঐ ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ এনে বদলগাছী থানায় একটি মামলা দায়ের করে। বাবা হাসান আলী জানায় সে দিন মজুরী কাজে গিয়েছিল। ফিরে এসে বিষয়টি জানতে পারে। অপরদিকে অভিযুক্ত সামসুল আলমের সংগে কথা বলে তিনি জানান গ্রাম সম্পর্কে সে নাতনী হয় এজন্য আমি ঐ ছাত্রীর হাত ধরেছি এবং স্প্রে মেশিন নেওয়া কথা বলি। এসময় তার বাড়িতে কেউ ছিল কি না জানতে চাইলে তিনি জানান এসময় তার বাড়িতে কেউ ছিল না।
এবিষয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন চৌধুরী জানান, চতুর্থ শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টা করা হয়েছে যা কাম্য নয়। থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চৌধুরী জোবায়ের আহমেদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান এবিষয়ে থানায় একটি মামলা হয়েছে।

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *