নড়াইলের ডিবি ও থানা পুলিশের পৃথক পৃথক অভিযানে বিপুল পরিমান বাবাসহ কয় একটি ছেলে আটক

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি:

নড়াইলের রঘুনাথপুর সরকারি প্রাথামিক বিদ্যালয়ের পাশে পাকা রাস্তার উপর থেকে জেলা (ডিবি) পুলিশের একটি চৌকস টিম একাধীক মাদক মামলার পলাতক আসামি মোঃ বিপুল সিকদার(৩৫) তার পিতার নাম হারুন সরদার। তার ২জন সহযোগীসহ, ১১০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ জেলা (ডিবি) পুলিশের একটি চৌকস টিমের এস আই তাহিদ’র নেতৃতে গ্রেফতার কার হয়। অপরদিকে পৃথক মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে গভির রাতে অভিযান চালিয়ে ৪ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ৪৭ পিস ভারতীয় ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায় জানান, ডিবি ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা জায় দিবা গত রাত সাড়ে ১১টার দিকে থানার এসআই নেতৃত্বে সংগীয় ফোর্সসহ অভিযান চালিয়ে নড়াইলের শালনগর ইউনিয়নের রামকান্তপুর গ্রামের টিটু মোল্যার বাড়ির সামনে থেকে ৪৭পিচ ইয়াবাসহ চারজন মাদক ব্যাবসায়ীকে আটক করেছেন থানা পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন, নড়াইল জেলার শালনগর ইউনিয়নের রামকান্তপুর গ্রামের মৃত আব্দুল মালেক মোল্যার ছেলে টিটু মোল্যা, জয়পুর ইউনিয়নের মরিচপাশা গ্রামের পারঘাটার শিকদার আনিসুর রহমানের ছেলে এনায়েত শিকদার, ধানাইড় গ্রামের বাদশা শেখের ছেলে উজির শেখ ও নোয়াগ্রাম ইউনিয়নের শামুকখোলা গ্রামের মুন্সি শামসুর রহমান ওরফে কালামের ছেলে সোহেল রানা। তাদের কাছ থেকে ৪৭পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে।

নড়াইলের লোহাগড়ায় থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে পাঁচটি চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধার ও জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে আটক করেছেন পুলিশ জানান,গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমি এসআই মিল্টন কুমার দেবদাস ও এসআই আতিকুজ্জামানের নেতৃত্বে সংগীয় ফোর্সসহ গভীর রাতে উপজেলার ইতনা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে অভিযান চালিয়ে পাঁচটি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি।

এ সময় চোরাই মোটরসাইকেল কেনাবেচার সাথে জড়িত থাকার অপরাধে চারজনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতরা হলেন, ইতনা ইউনিয়নের পাংখারচর গ্রামের বাচ্চু মোল্যার ছেলে উজ্জল মোল্যা,ইতনা গ্রামের মৃত ওহাব ভূইয়ার ছেলে কচি ভূইয়া,ঈসমাইল শেখের ছেলে শেখ সাইফুল ইসলাম ওরফে ইসলাম শেখ ও লংকারচর গ্রামের আবুল শেখের ছেলে শেখ নাজমুল হাসান।

জড়িত আসামিদের হেফাজতে থাকা ভারতীয় তৈরি বাজাজ ডিসকভার ১৩৫ সিসি যার রেজিষ্ট্রেশন নং নড়াইল ল-১১-০৭০০, যশোর ল-১১-২০১৪। প্লাটিনা ১২৫ সিসি রেজি নং ঢাকা মেট্রো হ-৩৫-৭৮৮৩। হিরো প্যাসান ফুরো,মাদারীপুর হ-১১-১৪৬২। ও হিরো প্যাসান হোন্ডা,রেজি নং মাগুরা হ-১১-৪৬৯৬ উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত মোটরসাইকেল আদালতের নির্দেশে থানা হেফাজতে রয়েছে বলেও তিনি জানান।

এদিকে লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোকাররম হোসেন,বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমাদের পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) স্যারের নির্দেশনায় আমরা থানার কর্তব্যরত অফিসার”রা সর্বদা সব সময় অন্যায়, দুর্নিতি,মাদক,জঙ্গীবাদ,বাল্যবিবাহ,ইপটিজিং প্রতিরোধে সব সময় প্রস্তুত আছি এবং থাকবো।

পুলিশ জনগনের বন্ধু,আপনারা পুলিশ কে বা থানা কে আপনাদের নিজেদের ঠিকানা মনে করে আমাদের তথ্য দিন,আমরা আপনাদের পাসে আছি থাকবো,পুলিশ একা সব কিছুর সমাধান করতে গেলে সময় লাগে,আপনারা সবাই মিলে ঐক্য বদ্ধ হন,নড়াইল থেকে সকল প্রকার দুর্নিতি অনিয়ম মাদক ব্যাবসা বন্ধ করে দিব। অনেক সময় আপনারাই বলেন এসব মাদক ব্যাবসায়ীদের সেল্টার কারা দেয়,এবার আমি বলি আপনারাই বলেন কারা এসব মাদক ব্যাবসায়ীদের মদত দেয় বলেন,সে যেই হোক আমি তাদের কে আইনের আওতায় এনে বিচারের ব্যাবস্থা করবো।

পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার), বলেন পৃথক পৃথক ভাবে ডিবি ও থানা পুলিশের অভিযানে ১০জনকে আটক করে, ধৃত এ আসামীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্র আইনে মামলা দায়ের করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। আরো বলেন পুলিশ সুপার (এসপি)। সকলকে সব বাঁধা-বিপত্তি অতিক্রম করে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যেতে হবে। এছাড়াও মাদক, জঙ্গি ও সন্ত্রাসমুক্ত নড়াইল গড়ার প্রত্যয়ে সকলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে তাঁর বক্তব্য সমাপ্ত করেন।

 

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *