নড়াইলে ঈদকে সামনে রেখে চুই ঝালের কদর বেড়েছে কয়েকগুণ..!!

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধিঃ 
নড়াইলে ঈদকে সামনে রেখে চুই ঝালের কদর বেড়েছে কয়েকগুণ। চুইঝাল লতা জাতীয় এই গাছ এখন বেশকিছু জায়গায় বাণিজ্যিকভাবে চাষ করা হচ্ছে। যে কারণে  চুই ঝালের কদর এখন দেশজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে। আসন্ন কোরবানি উপলক্ষে চুই ঝালের চাহিদা বেড়েছে কয়েকগুণ।
উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি জানান, অনলাইন থেকেও কেনা যাচ্ছে এঞ্চলের চুই ঝাল।সংশ্লিষ্টরা জানান, এখন দেশের দক্ষিণাঞ্চলে বিশেষ করে বৃহত্তর নড়াইল সহ খুলনাঞ্চলে চুইয়ের আবাদ এবং বাজার রমরমা। শুকনো এবং কাঁচা উভয় অবস্থায় চুই বিক্রি হয়। চুইয়ের জনপ্রিয়তা আর গ্রহণ যোগ্যতার কারণে দেশ-বিদেশে চুইঝাল বা চুই হোটেল নামে অগণিত হোটেল রেস্তোরাঁর নামকরণ করা হয়েছে। এসব হোটেলে চুইসমৃদ্ধ খাবার পরিবেশন করা হয়। চুই গাছের ভেষজগুণ অসামান্য এবং বিস্তৃত। পেটেরপীড়া সারানো, ক্ষুধামন্দা, রুচি বাড়ানো, পেটের গ্যাস নিবারণ, শ্বাসকষ্ট-কাশি, ডায়রিয়া কমানো, ঘুম বাড়ানো, শারীরিক দুর্বলতা কমাতে, বাচ্চাপ্রসবের পর শরীরের ব্যথা কমানোর জন্য অব্যার্থ মহৌষধ হিসেবে চুইঝাল কাজ করে। লতাজাতীয় গাছ চুই।

মাংসের স্বাদ বাড়ানোর জন্য চুই ঝাল ব্যবহারের প্রচলন যুগ যুগ ধরে। যে কারণে কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে চুই ঝালের দাম বেড়ে গেছে। সবচেয়ে বেশি বাণিজ্যিকভাবে চুই ঝালের চাষ হয় শস্য ভাণ্ডারখ্যাত জেলা। চুই চাষি কাশেম মিয়া বলেন, এবার কোরবানির ঈদে চুই ঝালের ব্যাপক চাহিদা। পাইকাররা ৪শ টাকা কেজি দরে চুই ঝাল কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। তবে মাটির তলের চুই ঝাল ৭০০-৮০০ টাকায় বিক্রি করি। চুইঝালের জন্য বিখ্যাত খুলনায় এবারের কোরবানির বাজারে এ মসলাটির দাম কিছুটা বেড়েছে। মাস খানের আগে যে চুই ঝালের কেজি ছিলো ৫শ টাকা সেটি এখন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬শ টাকায়। আর ৮শ টাকার টা হাজার টাকায়।

খুলনায় সবচেয়ে বেশি চুই ঝাল পাওয়া যায় বড় বাজার, কেসিসি সন্ধ্যা বাজার ও গল্লামারী বাজারে।ব্যবসায়ীরা জানান, কোরবানির ঈদে চুইঝালের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। এটি শুধু মাংস নয়, তরকারি, ডাল, মাছের সঙ্গেও খাওয়া যায়। খুলনার চুই দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রফতানি হচ্ছে।তারা আরও জানান, দক্ষিণাঞ্চলে চুইঝাল একটি পরিচিত ও জনপ্রিয় গুরুত্বপূর্ণ মশলা ফসল।নড়াইল, খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, যশোর, প্রভৃতি জেলায় চুইঝালের চাষ করা হয়। ভালো মানের চুইঝাল এক হাজার টাকা কেজি।কোরবানি ঈদ উপলক্ষে চুই ঝালের বিক্রি বেড়ে গেছে।

অনলাইনে দেশব্যাপী চুইঝাল সরবরাহ করছে উড়া ও খুলনামার্ট নামের দু’টি প্রতিষ্ঠান। কোরবানি উপলক্ষে তাদেরও বিক্রি বেড়েছে বহুগুণ। নড়াইল জেলা সহ খুলনাঞ্চলের একটি মুখরোচক সুস্বাদু মাংসের মসলা চুই ঝাল। কোরবানির সময় যেটার চাহিদা অনেক গুণ বেড়ে যায়। চুই ঝালের সুনাম সুখ্যাতি রয়েছে সারাদেশে। ইতোমধ্যে ঈদ উপলক্ষে দেশের ৫০টিরও অধিক জেলা থেকে খুলনার চুইঝালের অর্ডার পেয়ে সরবরাহ করেছি। খুলনা-সাতক্ষীরা-যশোর অঞ্চলে মাংস রান্নার এক অন্যতম অনুষঙ্গ চুই ঝাল। গরু কিংবা খাসির মাংসে যেন এক আলাদা স্বাদ এনে দেয় চুই ঝাল।

নামেই বোঝা যায় এটি স্বাদে ঝাল, কিন্তু এই ঝাল একটু আলাদা। এর রয়েছে একটি আলাদা গন্ধ যা তরকারি বা রান্না মাংসে আনে আলাদা এক আমেজ। আরও মজার ব্যাপার হলো খাওয়ার পর এই ঝাল বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় না অর্থাৎ এটা খেয়ে যদি আপনার ভীষণ ঝাল লেগে যায়, মাত্র কিছুক্ষণ পরেই সেটা চলে যাবে।

সময়নিউজ২৪.কম/ বি এম এম 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *