নড়াইলে ডেঙ্গু, ছেলে ধরা গুজব, শিশু নির্যাতন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের নানামূখী উদ্যোগ

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল :
লে ডেঙ্গু, ছেলে ধরা গুজব, শিশু নির্যাতন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের নানামূখী উদ্যোগের কারণে গুজব পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এসেছে স্থানীয় জনগণ ও গণমাধ্যমকর্মীদের এ সময় বলেন, পদ্মা সেতুতে মাথা লাগবে, রক্ত লাগবে এমন মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে নিরপরাধ মানুষকে নিহত-আহত করার মতো দুঃখজনক ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু বাংলাদেশ পুলিশের নানামূখী উদ্যোগের কারণে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এসেছে। মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও ইভটিজিং এর মতো অপরাধ নির্মূলে নড়াইলের পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে চলছে। এতে পুলিশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে। এ সময় স্থানীয় লোকজন স্বচ্ছ ও দুর্নীতিমুক্তভাবে পুলিশ কনস্টেবল পদে নিয়োগ সম্পন্ন করার জন্য নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার)কে ধন্যবাদ জানিয়ে তার প্রশংসা করেন। এরপর পুলিশ সুপার, নড়াইলের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নড়াইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল), শেখ ইমরান, নড়াইলের (কালিয়া সার্কেল) রিপন বিশ্বাস, এ সময় উপস্থিত ছিলেন, নড়াইল সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইলিয়াস হোসেন (পিপিএম), নড়াইল জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি, ডিআইও-১ এস এম ইকবাল হোসেনসহ, নড়াইলের সকল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাবৃন্দ ও পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের কর্মকর্তারা, এ সময় গণমাধ্যমকর্মীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায়, ভোরের বাংলা পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক মোঃ হিমেল মোল্যাসহ ক্লাবের সকল সদস্যবৃন্দসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার) বলেন, তাই গুজবে বিভ্রান্ত হয়ে নিরপরাধ মানুষকে ছেলেধরা ভেবে গণপিটুনি দেয়া বা হত্যার উদ্দেশ্যে পরিকল্পিতভাবে গণধোলাই দেয়া থেকে বিরত থাকার জন্য নির্দেশনা জারি করেছে সরকার। পাশাপাশি গুজব সংক্রান্ত যে কোন ব্যাপারে আইন হাতে তুলে না নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তা নেয়ার জন্যও জনসাধারণকে অনুরোধ করেছে সরকার। আর গণপিটুনি দিতে গিয়ে কেউ আইন হাতে তুলে নেবেন না। কোন লোককে সন্দেহ হলে সঙ্গে সঙ্গে পুরিশকে জানাতে বলা হয়েছে। এছাড়া ওইসব সতর্ক বার্তা পৌঁছে দিতে পুলিশ কর্মকর্তারা উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র, শিক্ষক ও অভিভাবকদের নিয়ে সমাবেশ করেছেন। ওই সব সমাবেশে ওই ধরণের অপপ্রচার ও গুজবভীতি থেকে মানুষকে সতর্ক করতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। অপরদিকে কেই যাতে আইন হাতে তুলে নিয়ে নিজেদেরকে বিপদগ্রস্থ করতে না পারে,সে জন্য সমাবেশ ও মাইকিংয়ের মাধ্যমে সকলকে সচেতন করা হচ্ছে। নড়াইলের সকল থানার ওসি অংশগ্রহন করেছেন। এছাড়াও সমাজের অনেক গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ গুজব বিরোধী সচেতনতা মুলক অংশ গ্রহণ করেন। ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস পালনের প্রস্তুতি তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *