নড়াইলে শ্রীশ্রী রাস মন্দির প্রাঙ্গনে বাবাজীর বিশাল রাস পূর্ণিমার মেলায় ডিসি-এসপি ফুল দিয়ে বরণ

 managed wordpress hosting

উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধিঃ

নড়াইলে ত্রিভঙ্গ ব্রম্মচারী বাবাজির রাস পূর্ণিমায় ডিসি-এসপি ঐতিহ্যবাহী রাস নড়াইল সদর’র সনাতনী ধর্মাবলম্বীদের দেবভোগ গ্রামে হাজার-হাজার ভক্ত ও দর্শনাথী ঐতিহ্যবাহী রাস মহোৎসব ও মেলা।

রাস মেলা ও মহোৎসবকে কেন্দ্র করে সদরের দেবভোগ শ্রীশ্রী রাস মন্দির প্রাঙ্গনে ভীড় করছে ভক্তরা। রাস মেলা উপলক্ষে চলছে উৎসবের আমেজ। জমজমাট উৎসব এলাকার স্কুল মাঠ ও রাস মন্দির প্রাঙ্গণ। মেলাস্থলে বসেছে বাহারী পণ্যের স্টল, নাগরদোলা, মৌসুমী ব্যবসায়ীদের দোকানপাট।

নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায় জানান, উৎসবের ভিতরে চলছে ধর্মীয় সংকীর্তন, প্রতিমা প্রদর্শনী, রাস পূর্ণিমার পূজা। এতে আগমন ঘটেছে হাজার হাজার নারী-পুরুষ, শিশু-কিশোর, দেশি-বিদেশী পর্যটক, দর্শণার্থী ও ভক্তবৃন্দ। আমাদের দেবভোগ সার্বজনীন শ্রীশ্রী রাস মহোৎসব উদযাপন পরিষদের প্রধান ত্রিভঙ্গ ব্রম্মচারী বাবাজি জানান, রাসমেলা। হাজার হাজার ভক্তের সমাগম ঘটেছে রাস মেলায়।

প্রচুর ভক্তের সমাগম ঘটবে। সমাপ্ত রাসমেলা। সকল সম্প্রদায়কে ধর্মীয় চেতনায় মেলা প্রদর্শন করার অনুরোধ জানাচ্ছি। বিশেষ লাইটিং এর মাধ্যমে গভির রাতেও নড়াইল জেলা উদযাপন পরিষদের আমন্ত্রনে আলোচনা অনষ্ঠানে জেলা প্রশাসক আন্জুমানারা ও নড়াইলের পুলিশ সুপার (এসপি) জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) বলেন, ভক্তি মানুষের হৃদয়কে পূর্ণতা দান করেন। মানুষ অপরের কাছে ভালো থাকতে, স্বয়ং নিজেকে ঠকায়। অর্থাৎ মানুষ মনে মনে তার কুশক্তি ও পশুত্বকে ঠিকই লালন করে।

আর লোকাচারের জন্য মিথ্যাচার করে। আর এই জন্যই প্রথমে কাউকে উত্তম মনে হলেও পরবর্তীতে তার থেকেই পশুবৃত্তি লক্ষ্যিত হয়। ভক্তি মানুষকে অন্তর থেকে শুদ্ধিলাভ দান করে। ঈশ্বরের প্রেম দ্বারা উপলদ্ধি করে, জগতের সমস্ত কিছুই অনিত্য আর এই রুপ-যৌবনও ক্ষনস্থায়ী। তাই এইগুলো দ্বারা অহংকার কিংবা এই গুলোর প্রভাবে অধর্ম করা বোকার ন্যায়। পতি-পতœী যখন এই জগতের অনিত্য জ্ঞানকে পরিত্যাগ করে, ঈশ্বরের নিত্য জ্ঞানকে হৃদয়ে লালন করে। তখন তাদের পবিত্র বন্ধন আত্মার মিলনে রুপ নেয়। যেটা জীবনের চরম স্বার্থকতা।

আর এই জ্ঞান তাদের সমগ্র জীবন একসাথে কাটাতে সাহায্য করে। কারো প্রতি কখনও কোন প্রকার বিরক্তি এবং ক্ষোভ আসতে দেয়না। তারা উপলব্ধি করে, এই জগতে সুখ পেতে হলে সমস্ত পরিস্থিতিতে নিজেকে সন্তষ্ট মনে করতে হবে। কারন এই জগতে মানুষ কখনই কোন কিছুর প্রাপ্তি দ্বারা সন্তষ্ট হতে পারেনা বরং প্রাপ্তির পরে আরো আকাঙ্ক্ষা বেড়ে যায় তাই সমস্ত অবস্থায় সন্তষ্ট থাকাই সংসারে সুখ লাভ করার অন্যতম উপায়। ঈশ্বরের জ্ঞান সংসারে তাদের সুখী লাভ করে এবং তারা পরকালেও সুখী হয়। হরি বোল। রাস মেলা সনাতনী ধর্মাবলম্বীদের উৎসব হলেও এখানে অসাম্প্রদায়িক চেতনার উন্মেষ ঘটে। ওই এলাকার হিন্দু-মুসলিম, বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের মিলনমেলা ঘটে ৫দিনব্যাপী। এখানে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের লোকজন ছাড়াও সমাগম ঘটে ভারত, নেপালের ভক্তদেরও।

পর্যটন নগরীর পাশ্ববর্তী এলাকায় উৎসব অঙ্গন হওয়ায় পর্যটকেরও কমতি নেই। কেই আসে ঐতিহ্যবাহী রাস দেখতে, কেউ আসে লীলা প্রদর্শনী দেখতে, কারও অবস্থান ঘটে প্রতিমা প্রদর্শন করতে। আর সনাতনী ধর্মাবলম্বীরা আসে ভক্তি ভরে রাসপূজা করতে।

managed wordpress hosting

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *