নড়াইল পৌরসভা নির্বাচনে   মাঠ কাঁপাচ্ছেন দুই মেয়র প্রার্থী

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি:

তারা একে-অপরের প্রতিবেশি। প্রায় ২০ গজের মধ্যে দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর বাড়ি। গাঁ ঘেষাঘেষি করে দাঁড়িয়ে আছে দুইজনের বাড়ি। এদের মধ্যে একজন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী। অপরজন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী। আগামী ৩০ জানুয়ারি নড়াইল পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে মূল প্রতিদ্বন্দ্বি তারা। এখানে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আঞ্জুমান আরা। ধানের শীষের প্রার্থী জুলফিকার আলী মন্ডল। শেষ মুহূর্তে দুই প্রার্থী ও তাদের সমর্থকেরা ভোটারদের মন জয় করতে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। মেয়র নির্বাচিত হলে আধুনিক ও মডেল পৌরসভা গঠনের কথা বলছেন। এ ছাড়া মাঠে আছেন ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মাওলানা খায়রুজ্জামান (হাতপাখা প্রতীক)। অন্যদিকে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সরদার আলমগীর হোসেন গত সোমবার (২৫ জানুয়ারি) নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। তিনি নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আঞ্জুমান আরাকে সমর্থন দিয়েছেন।

এদিকে, প্রথমবারের মতো নড়াইল পৌরসভায় নারী মেয়র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন আঞ্জুমান আরা। নির্বাচনের শুরু থেকে কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তিনি। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকতা ছেড়ে রাজনীতিতে মাঠ কাঁপাচ্ছেন আঞ্জুমান আরা। তবে ছাত্রজীবন থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে যুক্ত ছিলেন তিনি। নির্বাচনে বিজয়ের ব্যাপারে আশাবাদী এই প্রার্থী। নির্বাচিত হলে নড়াইল পৌরবাসীর সেবা করতে চান। মডেল পৌরসভা গড়তে চান।

বিএনপি প্রার্থী জুলফিকার আলী মন্ডল বলেন, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আমি বিজয়ী হবো। পৌরসভার উন্নয়নে পরিকল্পনা মাফিক কাজ করব। এ ছাড়া নড়াইল পৌরসভার সাবেক মেয়র হিসেবে জনগণের আশা-আকাঙ্খা উপলব্ধি করতে পারি। সেই মোতাবেক কাজ করব।এছাড়া নড়াইল পৌরসভায় সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১১ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।জানা যায়, প্রথম শ্রেণির নড়াইল পৌরসভায় জলাবদ্ধতা ও ড্রেনেজ ব্যবস্থাসহ রাস্তার সমস্যা রয়েছে। বর্ষাকালে সামান্য বৃষ্টিতে অনেক এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। এসব সমস্যার সমাধানসহ আধুনিক পৌরসভা দেখতে চায় ভোটাররা।

২৪টি এলাকা নিয়ে নড়াইল পৌরসভা গঠিত। ভোটার সংখ্যা ৩৪ হাজার ৩১৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৬ হাজার ৭০৪ জন এবং নারী ভোটার ১৭ হাজার ৬০৯জন। ৩০ জানুয়ারি ১৪টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ডেঙ্গুজ¦রে আক্রান্ত হয়ে গত ২৫ নভেম্বর দুপুরে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন নড়াইল পৌরসভার মেয়র জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক জাহাঙ্গীর বিশ্বাস।

সময় নিউজ২৪.কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *