পলাশবাড়ীতে করতোয়ার বাঁধ কেটে বালু ব্যবসা চালমান।। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা

সরকার লুৎফর রহমান,গাইবান্ধাঃ
গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীনে পলাশবাড়ী করতোয়া বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের বিভিন্ন অংশে বাঁধ কেটে ট্রাক্টর চলাচলের রাস্তা বের করে অবাধে চলছে বালু ব্যবসা। ফলে সাধারণ যানবাহনসহ পথচারীদের চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে এ বাঁধটি। এমতাবস্থায় নদীর পানি বৃদ্ধি পেলে বাঁধের বিভিন্ন অংশ ভেঙে জোলাট তিনটি উপজেলার বেশ কয়েকটি ইউনিয়ন প্লাবিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
সরেজমিনে দেখা যায়, গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার গোসাইজানী ব্রীজ হতে পলাশবাড়ী উপজেলা হয়ে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কাটাখালী ব্রীজ পর্যন্ত প্রায় ২৫ বছর পূর্বে তৎকালীন সরকার ৪৫ কিঃমিঃ বাঁধ নির্মাণ করেন। বাঁধ নির্মাণের পর থেকেই তিনটি উপজেলার বেশ কিছু ইউনিয়নের কৃষক বন্যায় ক্ষতির হাত হতে রক্ষা পায়। কিন্তু গোটা বাঁধ এলাকাজুরে ব্যক্তিগত প্রয়োজনমত বাঁধ কাটা হচ্ছে দিনের পর দিন। হটাৎ উজানের পানিতে র চাপে তিনটি উপজেলার হাজার হাজার বিঘা জমির ফসলসহ মাছ চাষীরা হুমকি মুখে পড়বে অধিক ক্ষতির সম্মুখীন হবে পলাশবাড়ী উপজেলার কিশোরগাড়ী হোসেনপুর ইউনিয়ন এবং পলাশবাড়ী পৌরসভা এলাকা।
এ বাঁধটি নির্মাণের পর থেকে আজ অদ্যবধি উল্লেখযোগ্য কোন সংস্কার করা হয়নি। কৃষকদের বন্যার হাত থেকে বাঁচাতে বাঁধটির বিভিন্ন অংশে সংস্কার করা অত্যান্ত জরুরী হয়ে পড়েছে এবং বাঁধ কর্তণকারী অবৈধ বালু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে  সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার দাবী রাখছেন সচেতনমহল।
সময় নিউজ২৪.কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *