পাঁচবিবিতে ৬’হাজার টাকা দিয়ে চুরি যাওয়া মিটার উদ্ধার

মোসলেম উদ্দিন,হিলি :
জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে বিকাশের মাধ্যমে চোরকে ৬’হাজার টাকা দিয়ে বৈদ্যুতিক মিটার উদ্ধারের ঘটনা ঘটেছে।

৭ জুলাই রবিবার রাতে দানেজপুর বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন কামরুজ্জামান ও পৌর প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রভাষক আহসান হাবিবের ভাই ভাই নামিয় করাত কল (স’মিল) থেকে মিটারটি চুরি হয়েছিল। চোরেরা মিটার বক্সে মোবাইল নম্বর(০১৩০৭৯৩১১৬৯) সংবলিত একটি চিরকুট রেখে যায়।ওই নম্বরে মালিক পক্ষ যোগাযোগ করলে তারা ৮’হাজার টাকা দাবি করেন। চোরেরা দর কষাকষির এক পর্যায়ে ৬ হাজার টাকার কম হলে মিটার দিবেনা বলে জানিয়ে দেন । বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন নম্বরে মালিক পক্ষের সাথে কথা বলেন । বিষয়টি প্রথম থেকেই থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়।

এদিকে নতুন মিটারের জন্য মালিক পক্ষ পল্লীবিদ্যুৎ অফিসে যোগাযোগ করলে তারা মিটার বাবদ ১৭’হাজার ৫’শ টাকা ও জুলাই মাসের বিল বাবদ ৩’হাজার টাকা চান। উপায়ন্ত না দেখে চুরি হওয়ার ৪ দিনের মাথায় ১০ জুলাই বুধবার সকালে চোরের ০১৭৬১২১০৬৪০ এই বিকাশ নম্বরে ৬’হাজার টাকা পাঠানো হয়।

বিকাশে টাকা পাবার পর তারা ০১৩০৭৯৩১১৬৯ এই মোবাইল নম্বর থেকে মালিক পক্ষকে উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়নের শালাইপুর বাজারের পূর্বপ্রান্তে রাস্তার উত্তর পার্শ্বে যেতে বলেন। সেখান থেকে খড়ের পালার ভিতর পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় মিটারটি উদ্ধার করা হয়।একটি সংঘবদ্ধ চক্র দীর্ঘদিন থেকে মিটার চুরির সাথে জড়িত। বিশেষ করে বোরো সেচ মৌসুমে গভীর ও অগভীর নলকূপ থেকে তারা মিটার চুরি করে বিকাশে টাকা নিয়ে মিটার ফেরৎ দেন। চক্রটি ধরাছোঁয়ার বাইরে।

তাদের অত্যাচারে কৃষকরাও অসহায় ও অতিষ্ঠ।এদিকে পৌরসভার প্রাণকেন্দ্র থেকে মিটার চুরির ঘটনায় মিল মালিক ও চাতাল ব্যবসায়ীরা উদ্বিগ্ন। তারা পুলিশি টহল জোরদারের পাশাপাশি সংঘবদ্ধ মিটার চোর চক্রকে খুঁজে বের করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। পাঁচবিবি থানার ওসি মোঃ মনসুর রহমান এবিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন বলে জানিয়েছেন।

সময় নিউজ২৪.কম/এএসআর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *