পুলিশের ভুলে ১১ মাস কারাগারে শুক্কুর!

অনলাইন ডেস্কঃ

মাদকের একটি মামলায় আসামি না হয়েও ১১ মাস জেল খাটলেন মো. শুক্কুর শাহ নামের এক ব্যক্তি। মঙ্গলবার ঢাকার ২ নম্বর বিশেষ জজ আদালতে গিয়ে দেখা যায়, আসামি মো. শুক্কুর শাহ পুলিশের ভুলে আসামি হয়ে জেল খেটেছেন। তাঁর হাতে ছিল হাতকড়া। এ বিষয়ে শুক্কুরের আইনজীবী জাকির হোসেন বলেন, ২০১১ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি শুক্কুর আলী নামের এক আসামি গ্রেপ্তার হন। ওই বছরের ১৩ সেপ্টেম্বর এ মামলায় জামিন পেয়ে পলাতক হয়ে যান শুক্কুর আলী। পরে ২০১৩ সালের ৩ এপ্রিল তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়। এরপর আদালত থেকে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হলে পুলিশ গত বছরের মার্চ মাসে শুক্কুর শাহকে শুক্কুর আলী মনে করে এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখায়। এরপর প্রায় ১১ মাস শুক্কুর শাহ অন্যের মামলায় কারাগারে আটক ছিলেন।

জাকির হোসেন জানান, শাহবাগ থানায় করা মাদকের মামলায় বাদী সাক্ষ্য দিতে এলে বলেন, তাঁর আসামি শুক্কুর শাহ নন, শুক্কুর আলী। এরপর বিচারক এ মামলার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আদালতে তলব করেন। সেই সঙ্গে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা তামিল কর্মকর্তাকেও তলব করেন। পুলিশ কর্মকর্তারা আজ আদালতে এসে নিজেদের ভুল স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। এরপর বিচারক শুক্কুর শাহকে অব্যাহতি দিয়ে অবিলম্বে তাঁকে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দেন। ওই নির্দেশের পর রাত সাড়ে ৯টার দিকে কেরানীগঞ্জে অবস্থিত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে শুক্কুর শাহ মুক্তি পান বলে আইনজীবী জাকির হোসেন জানিয়েছেন।

সময়নিউজ২৪.কম/ এ এস আর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *