প্রান্তিক অঞ্চলের মানুষের আধুনিক ও উন্নত স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতে মোংলায় যাত্রা শুরু করলো ফ্রেন্ডশিপ হেলথ ক্লিনিক

মোংলা প্রতিনিধিঃ

প্রান্তিক অঞ্চলের মানুষের মাঝে আধুনিক ও উন্নত স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতে যাত্রা শুরু করলো ফ্রেন্ডশিপ হেলথ ক্লিনিক। শনিবার বিকালে মোংলা পোর্ট পৌরসভার মাছ মারা এলাকায় এ ফ্রেন্ডশিপ হেলথ ক্লিনিক’র শুভ উদ্ধোধন করা হয়েছে। দক্ষিনপশ্চিমাঞ্চলের বাগেরহাটের মোংলা উপজেলার প্রায় ৫ একর জমির উপর আধুনিক এ ক্লিনিক প্রতিষ্ঠা করেছে উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা ফ্রেন্ডশিপ।

এ ক্লিনিক উপকুলীয় এলাকায় ভালো ভুমিকা রাখবে এবং স্বল্প খরচে স্বাস্থ্য সেবায় আধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা প্রদান করা হবে বলে দাবী কর্তৃপক্ষের। এছাড়া সুন্দরবন সংলগ্ন এলাকায় আরো ২০টি স্যাটেলাইট ক্লিনিক এর মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করছে এই সংস্থাটি। এখানে স্থানীয় বাসিন্দারা মা ও শিশু স্বাস্থ্য, চোখ, দাত, চর্ম, মেডিসিন, পক্ষাঘাত গ্রস্থদের চিকিৎসা ও পরিবার পরিকল্পনা সেবাও প্রদান করা হবে এ ক্লিনিকের মাধ্যমে। নতুন স্থাপিত এই ক্লিনিকের মাধ্যমে মোংলার ৬টি ইউনিয়নের দেড় লাখ মানুষের পাশাপাশিসহ আশপাশের এলাকার বাসিন্দারাও স্বাস্থসেবা পাবেন বলে আশাকরেন উদ্যোগতারা। মোংলার এ ফ্রেনশিপ হেলথ ক্লিনিকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পাশাপাশী স্বাস্থ্য পরিক্ষার জন্য প্যাথলজিষ্ট, ফার্মাসিষ্ট, আই টেকনোলজিষ্ট, ডেন্টাল টেকনোলজিষ্ট, ফিজিও থেরাপিষ্টসহ সেবায় নিয়োজিত রয়েছে একদল অভিজ্ঞতা সম্পন্ন স্বাস্থ্যকর্মী।

শনিবার বিকালে ফ্রেন্ডশিপ আধুনিক হেলথ ক্লিনিকের ফিতা কেটে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বন, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষায়ক উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার। পরে তিনি ক্লিনিক ও স্বাস্থ্য সেবার মান ও ক্লিনিকের বিভিন্ন দপ্তর ঘুরে দেখেন। এ উপলক্ষে ক্লিানিক চত্বরে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় আয়োজন করা হয়। সেখানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপমন্ত্রী।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ফ্রেন্ডশিপ হেলথ ক্লিনিক’র প্রতিষ্ঠাতা নির্বাহী পরিচালক রুনা খান, সাবেক সচিব নমিতা হালদার, উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিসেস কামরুন নাহার হাই, উপজেলা হসহকারী কমিশনার (ভুমি) নয়ন কুমার রাজ বংশী, থানা আওয়ামীলীড়ের সভাপতি সুনীল কুমার বিশ্বাস, ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা তরিকুল ইসলাম, মোঃ আকবর গাজী সহ সেবাগ্রহীতা ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপমন্ত্রী বলেন, মোংলা বন্দরের উপকুলীয় এলাকায় লবনক্ততা, ঘুর্নিঝড়, জলোচ্ছাসের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগ করলীত প্রান্তিক এলাকায়র বাসিন্দাদের সুস্বাস্থ্য বিবেচনা করে সরকারী স্বাস্থ্যসেবার পাশাপাশী ব্যাক্তি মালিকানা উদ্যোগে হেলথ ক্লিনিক ও হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার জন্য উন্নয়ন সহযোগী সংস্থার ফ্রেন্ডশিপের প্রশংসা সহ এলাকাবাসীর সহোযোগীতার কামনা করেন তিনি।

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *