প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে বাংলাদেশ ন্যাপ’র শোক

ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপ’র মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।
শুক্রবার (৯ এপ্রিল) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক শোকবার্তায় নেতৃদ্বয় প্রয়াত প্রিন্স ফিলিপের আত্মার শান্তি কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবার এবং ব্রিটেনের জনগনের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।
তারা বলেন, রানি এলিজাবেথের ৬৯ বছরের শাসনামলে সবসময় সঙ্গী ছিলেন প্রিন্স ফিলিপ। রাশভারী স্বভাব এবং বিচক্ষণতা তাকে অনন্য পর্যায়ে পৌঁছে দিয়েছে। দীর্ঘ রাজত্বকালে রানীর পাশে থেকে একনিষ্ঠ সমর্থন জুগিয়েছেন, যা ব্রিটিশ ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে।
নেতৃদ্বয় বলেন, ১৯২১ সালের ১০ জুন গ্রিক ও ড্যানিশ রাজপরিবারে জন্ম নেয়া প্রিন্স ফিলিপ ১৯৪৭ সালে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে বিয়ে করেন। বিশ্বযুদ্ধ-পরবর্তী সময়ে রাজতন্ত্রকে আধুনিকায়ন করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন তিনি। বাকিংহাম প্যালেসের দেয়ালের ভেতরে এলিজাবেথকে রানি হয়ে ওঠার পেছনে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মানুষটি ছিলেন প্রিন্স ফিলিপ। রানির আস্থাও অর্জন করেছিলেন তিনি।
তারা বলেন, সারা বিশ্বে প্রতিবন্ধীদের উৎসাহিত করা ছাড়াও পরিবেশ ও বণ্যপ্রাণী সংরক্ষণ এবং খেলাধুলার প্রতি তাঁর ছিল অদম্য উৎসাহ। প্রিন্স ফিলিপ শুধু যুক্তরাজ্য নয়,কমনওয়েলথভুক্ত দেশ ছাড়িয়ে বিশ্বের মানুষের ভালবাসা অর্জন করেছিলেন।
উল্লেখ্য, ব্রিটেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপ ‘ডিউক অব এডিনবারা’ খেতাবধারী এই যুবরাজের বয়স হয়েছিল ৯৯ বছর।শুক্রবার স্থানীয় সময় সকালে ব্রিটেনের রাজভবন উইন্ডসর ক্যাসেলে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *