dav

ফরিদগঞ্জে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনায় মুহম্মদ শফিকুর রহমান এমপি

 
Your personal, business or professional blog website is just a click away!

চাঁদপুর প্রতিনিধি :

চাঁদপুর-৪ (ফরিদগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য মুহম্মদ শফিকুর রহমান বলেছেন, আওয়ামী লীগের ভ্যানগার্ড হলো আওয়ামী যুবলীগ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীনের পর একদল উচ্ছৃঙ্খল যুব সমাজকে শৃঙ্খলার মধ্যে আনার জন্যে এবং যুবকদের মাধ্যমে স্বাধীনতাত্তোর বাংলাদেশকে গড়ার জন্য তাঁরই নির্দেশে যুবলীগ গঠন করা হয়। তিনি বলেন, পাকিস্তান সরকার বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া শেখ মনির শিক্ষাজীবন কেড়ে নিয়েছিল শুধুমাত্র তাঁর দেশপ্রেম দেখে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একান্ত বিশ্বস্ত ছিলেন শেখ ফজলুল হক মনি। বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীরা জানতো যদি মনি বেঁচে থাকে তাহলে তাদের রক্ষা এদেশে হবে না। যার কারণে খুনিরা বঙ্গবন্ধুর আগে মনি ভাইয়ের বুকে গুলি চালিয়েছে। সেই শেখ ফজলুল হক মনির হাতে গড়া এই সংগঠনটি আজ সারাদেশে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে ও দলীয় কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করছে।

তারই ধারাবাহিকতায় ফরিদগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির নেতৃত্বে দলকে সমৃদ্ধ করা হবে। তরুণরা যাতে আওয়ামী লীগের তথা জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রেখে এগিয়ে যেতে পারে সে চেষ্টা করা হবে। যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে উপজেলা যুবলীগের বিশাল ও বর্ণাঢ্য আয়োজন এবং তরুণ প্রজন্মের ব্যাপক উপস্থিতি আগামী দিনের আধুুনিক ফরিদগঞ্জ গড়তে আমাকে উদ্বুদ্ধ করছে। আমি চাই ফরিদগঞ্জে তৃণমূল পর্যায় থেকে উপজেলা পর্যন্ত এমন নেতৃত্ব উঠে আসুক, যাদের মাধ্যমে রাজনীতিসহ সর্বস্থানে আমরা দুর্নীতিমুক্ত একটি উপজেলা গড়তে পারি।

তিনি আরো বলেন, ফরিদগঞ্জে একটি পক্ষ দলের বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। সর্বশেষ আজকের এই যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠান নিয়েও ষড়যন্ত্র হয়েছে। কিন্তু তারা যতই ষড়যন্ত্র করুক না কেনো আমাদের নীতি ও আদর্শ থেকে টলাতে পারবে না। আমাদের আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সংগঠনের নেতা-কর্মীদের ইস্পাত কঠিন ঐক্যের মাধ্যমেই ষড়যন্ত্রকারীদের প্রতিহত করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, ফরিদগঞ্জে কোথায় মডেল মসজিদ হচ্ছে আমি জানি না। ভালোস্থানে না নিয়ে জঙ্গলে করার রহস্য উদ্ঘাটন করা প্রয়োজন। চাঁদপুরে কেনো আমাদের কর্মীদের উপর হামলার ঘটনা ঘটানো হচ্ছে, তা যাচাই করা প্রয়োজন। ইদানিং শুরু হয়েছে আমাদের নেতাদের চরিত্র হনন করা। আমার মনে হয়, তারা আমাদের নেতাদের কৌশলে চরিত্র নিয়ে টানাটানি করে তাদের দল ভারি করার অপচেষ্টা করছে। কিন্তু আর এটা হতে দেয়া যাবে না। আমরা এখন থেকে সজাগ রয়েছি।

দেশব্যাপী স্কুল কলেজ মাদ্রাসার এমপিও নিয়ে কী হয়েছে, তা সবাই জানে। আমি আমার একটি লেখায় এ নিয়ে মতামত তুলে ধরেছিলাম। কিন্তু এরপর যা হলো তা শুভ লক্ষণ নয়। কেউ কেউ বলেছেন, এটি প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলবেন। আমিও চাই তা প্রধানমন্ত্রীর কানে যাক। এসব রাজাকারের প্রতিষ্ঠান কীভাবে এমপিওভুক্ত হয়েছে, তা উঠে আসুক।

গত সোমবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে উপজেলা যুবলীগের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আবু সুফিয়ান শাহীনের সভাপতিত্বে ও সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক হেলাল উদ্দিনের পরিচালনায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মিজানুর রহমান কালু ভূঁইয়া, সদস্য অরূপ কর্মকার, পৌর মেয়র মাহফুজুল হক, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি খাজে আহাম্মদ মজুমদার, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতাহার হোসেন, উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক বিল্লাল হোসেন পাটওয়ারী, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ চাঁদপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান সউদ ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাজুদা বেগম।

বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা জিএম তাবাচ্চুম, রফিকুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আল-আমিন পাটওয়ারী, সদস্য আব্দুল গাফফার সজীব, পাবেল পাটওয়ারী প্রমুখ। আলোচনা শেষে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর ৪৭ পাউন্ডের কেক কাটা হয়। কেক কাটা শেষে তা নিকটবর্তী এতিমখানার এতিমদের প্রদান করা হয়।

Your personal, business or professional blog website is just a click away!

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *