বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা; কাজী মোরশেদ আলম

১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর শুভ জন্ম দিন। ১৯২০ সালে এই দিনে জন্ম লাভ করেছেন তিনি। তাঁর জন্ম জাতির জন্য মহা সার্থক। কেননা অবহেলিত মানুষের জীবনে শান্তির জন্য নিরন্তর চেষ্টায় মগ্ন থেকে তিনি দেশেকে স্বাধীন করেছেন। অনেক কষ্টের বিনিময় যুদ্ধ করে ধ্বংসস্তূপের মাঝে থেকে পরমোৎসবে একটি নতুন রাষ্টের সূচনা করে দেশকে উন্নয়নের দিকে যাত্রা শুরু করেছিল আর সেই মুহুর্তে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারকে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়েছে। যা জঘন্যতরো কাজ করেছে। তাঁকে ও তাঁর পরিবারকে হারিয়ে আকস্মিক বিয়োগে বেদনার সাগরে আমরা কাটছি সাঁতার। যারা অহেতুক রোষানলে তাঁকে হত্যা করেছে তাদের রক্ষা নেই। আমরা তাদের ধরে ফেলেছি আর যারা দেশের বাইরে আছে তাদেরকে ধরে ফেলবো। যিনি এ দেশের স্বাধীনতার জন্য সংগ্রাম করেছেন তাঁকে ও তাঁর পরিবারকে হত্যা করে সত্যিই কলঙ্কজনক ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। এ দেশ স্বাধীন ছিল না।

পরাধীনতার বন্ধনের মাঝে থেকে অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে এ দেশ স্বাধীন হয়েছে। আজ বঙ্গবন্ধু নেই, আমরা আছি। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন অনেক দুরে। মনমুগ্ধকর পরিবেশ বিরাজ করছে দেশের মাঝে। আজ দেশের মানুষ শিক্ষিত। অর্থনৈতিক দৈন্যদশা নেই আমাদের মাঝে। আয় উন্নতি বেড়েছে অনেক। শান্তির সাথে এগুচ্ছে বাংলাদেশ। আনন্দ ধ্বনি হচ্ছে নির্গত আমাদের অন্তরে। আর্ন্তজাতিক পরিম-লে আমাদের সুনাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমরা স্বাধীনতা বজায় রেখেছি, রাখবো। কিন্তু কতিপয় মানুষের কারণে আজ আমাদের দেশে অসন্তোষ করছে বিরাজ। জাতিবিদ্বেষী ও অহেতুক হানাহানি নিবৃত করে দেশকে সামনের দিকে নিয়ে যেতে হবে। স্বস্তিদায়ক ও আনন্দপূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। স্বাধীনতা মানে নিজ অধীনে থেকে ভালো কাজ করা। অথচ আমরা পাগলের মতো করছি কর্মকা-। পাগলকেতো স্বাধীনতা দেয়া যায় না। যাদের নেই কোনো হুস জ্ঞান তাদেরকে কিভাবে স্বাধীনতা দেবো। না তাদেরকে স্বাধীনতা দেব না। পাগলকে স্বাধীনতা দেয়া হলে যে কোনো মুহুর্তে করতে পারে ছারকার।

পরাধীনতার মজবুত শৃঙ্খল আমরা যেমন করে ভেঙ্গেছি তেমনি করে দেশের মাঝে আসবে যতো বাধা বিপত্তি তা দুর করবো সকলে মিলে। থাকবে যত শত্রুর দল আমরা তাদের করবোনা ক্ষমা। ভেঙ্গে দিব তাদের বিষ দাঁত। দুর্নীতি থাকবে না দেশের মাঝে। আমরা সব দুর্নীতি দেবো সামাল। থাকবেনা আমাদের মাঝে অসদাচারণ ব্যক্তি। আমারা আমাদের দেশ স্বাধীন করেছি। দেশের জন্য পরিশ্রম করে যাবো আর বিজয়ের হাসি হাসবো প্রাণ ভরে। আমরা রেখেছি স্বাধীনতার মান।

ভবিষ্যতেও রাখবো। আমাদের মাঝে আছে অত্যাধিক চেষ্টা। আমরা এখন করে যাচ্ছি উন্নয়ন দেশের তরে, দশের তরে। খতম করেছি শত্রুদল। শান্তির জন্য আছি সবর্দা তৎপর। মানসিক নিপীড়ন, দুর্বিষহ জীবন, ক্ষোভ ও দ্রোহ থাকবে না আমাদের মাঝে। মানুষের মনে আনবো শান্তি। মানুষের তরে বজায় থাকবে শান্তি। স্বাধীনতার মান অবশ্যই রক্ষা করে যাবো। বিজয়ের হাসি হাসবো। স্বাধীনতার মান বজায় থাকবে।

কাজী মোরশেদ আলম

লেখক, সাংবাদিক

সময়নিউজ২৪.কম/ এ এস আর

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *