বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটিতে “পারস্পারিক সহযোগিতাই ভবিষ্যৎ ব্যবসার প্রাণ” শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

 

প্রেস বিজ্ঞপ্তি 

সামাজিক যোগাযোগ বিষয়ে বিশেষজ্ঞ লেখক এবং বক্তা রন সাহা বলেছেন মানুষের কাজ এখন অটোমেশন দ্বারা প্রতিস্থাপিত হচ্ছে। রোবট, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা মানুষের কাজ কেড়ে নিচ্ছে। কিন্তু মনে রাখা জরুরি মানুষ অটোমেশনের চেয়ে অনেক শক্তিশালী ও সম্ভাবনাময়। আমাদের মানুষের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার উপরই আস্থা রাখতে হবে। বিজ্ঞানের আবিস্কারকে কাজে লাগাতে পারে এই মানুষেরাই- যন্ত্র নয়।

গতকাল রোববার (১ডিসেম্বর ২০১৯) বিকেলে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাস মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত “পারস্পারিক সহযোগিতাই ভবিষ্যৎ ব্যবসার প্রাণ” শীর্ষক সেমিনারে তিনি এ অভিমত ব্যক্ত করেন। বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি স্টার্টআপ এক্সসেলেরেটর এবং এডওয়ার্ড এম কেনেডি সেন্টার (ইএমকে) যৌথভাবে উক্ত সেমিনারের আয়োজন করে। বিইউ স্টার্টআপ এক্সসেলেরেটর প্রোগ্রামের উপদেষ্টা মিস টিনা জাবীন এর সার্বিক পরিচালনায় সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস এর বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর বিশেষ উপদেষ্টা প্রফেসর ইমরান রহমান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রার ব্রি. জে. মোঃ মাহবুবুল হক (অব:)।

মূল প্রবন্ধে রন সাহা বলেন, ভবিষ্যৎ কাজের দক্ষতা, যোগাযোগ, পারস্পারিক সহযোগিতাই ভবিষ্যৎ ব্যবসার সাফল্যের চাবিকাঠি। আমাদের ধারনা, উৎসাহ আমাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখে। ভবিষ্যৎ ব্যবসা ও যে কোন কাজে সাফল্যের জন্য এখন যা জরুরি তা হলো সামাজিক বুদ্ধিমত্তা ও কার্যকর পারস্পারিক সহযোগিতা।

সেমিনারে অন্যান্য বক্তারা ভবিষ্যৎ ব্যবসায় সাফল্যের ক্ষেত্রে পারস্পারিক সহযোগিতার উপর গুরুত্বারোপ করে বক্তব্য দেন।অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে প্রশ্নোত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির শিক্ষক, কর্মকর্তা ছাড়াও বিপুল সংখ্যক ছাত্রছাত্রী উপস্থিত ছিলেন ।

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *