বিপিএলে এ’ প্লাস ক্যাটাগরিতে থাকা ক্রিকেটাররাই বেশি লাভবান হচ্ছে

 managed wordpress hosting

অনলাইন ডেস্কঃ

ফ্রাঞ্চাইজিদের এবার বিপিএলে সুযোগ দেয়া হচ্ছে না। এবার বিপিএলের পুরো তত্বাবধান ও ব্যাবস্থাপনা সব কিছুই করবে বিসিবি। তাই ফ্রাঞ্চাইজি না থাকার কারণে ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিকে হেরফের হবে তা প্রথম থেকেই শুনা যাচ্ছিলো।

ক্রিকেটাররা ১১ দফা দাবি নিয়ে আন্দোলন করে। তাদের সব দাবি দাওয়া মেনে নেয় বিসিবি। যার কারণে মাঠে ফিরে ক্রিকেটাররা। আর বিসিবি ও ক্রিকেটারদের দাবি গুলো বাস্তবায়ন করতে থাকে। ক্রিকেটারদের সেই আন্দোলনের সবচেয়ে বড় প্রভাব লক্ষ্য করা গেলো বঙ্গবন্ধুর নামে হতে যাওয়া এবারের বিপিএলে।

ফ্রাঞ্চাইজি থাকলে ক্রিকেটাররা দর কষাকষি করে নিজেদের মূল্য কিছুটা বাড়াতে পারে। কিন্তু এবার প্লেয়ার ড্রাফট এর সময় বিসিবি যা ঠিক করে দিবে তাতেই সন্তুষ্ট থাকতে হবে ক্রিকেটারদের।

ক্রিকেটারদের আন্দোলনের সময় বেতন ভাতা নিয়ে ক্রিকেটাররা যে দাবি তুলেছিলো সে আলোকেই পুরোনো সিদ্ধান্ত থেকে সরে যাচ্ছে বিসিবি। আগে শুনা গেছে বিপিএলে দেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে ‘এ’ প্লাস ক্যাটাগরির ক্রিকেটাররা পারিশ্রমিক পাবেন সর্বোচ্চ ৩৫ লাখ থেকে ৪০ লাখ টাকা।

কিন্তু ক্রিকেটারদের আন্দোলনের কারণে ‘এ’ ক্যাটাগরির ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক বেড়ে হয়েছে ৭৫ লাখ। যদিও খসড়া তালিকায় এই ক্যাটাগরির পারিশ্রমিক দেয়া আছে, ৪০ লাখ থেকে ৭৫ লাখ।

‘এ’ প্লাস ক্যাটাগরিতে থাকবেন ৭ জন দেশি খেলোয়াড়। এই ক্যাটাগরিতে যারাই থাকবেন তাদের পারিশ্রমিক হতে হবে ৪০ থেকে ৭৫ লাখ টাকা।

যেহেতু বিসিবি খসড়া তালিকায় পারিশ্রমিক ৪০ লাখ থেকে ৭৫ লাখ অপশন রেখেছে তাই একেকজনের বেতন একেক রকম হবে। তবে জানা গেছে ‘এ’ প্লাস ক্যাটাগরির ক্রিকেটারদের কেউ ৭৫ লাখ টাকার নিচে রাজি হবে না।

মোট ৬ টি ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয়েছে দেশি ক্রিকেটারদের। তাদের চূড়ান্ত তালিকা ও প্রকাশ করেছে বিসিবি। কেননা পরশুদিন অর্থাৎ ১৭ তারিখ হবে প্লেয়ার ড্রাফট।

‘এ’ প্লাস ক্যাটাগরি ছাড়া বাকি ক্যাটগরির ক্রিকেটারদের আগের প্রস্তাবিত বেতনও বাড়ানে হয়েছে। তবে তা সর্বোচ্চ ৫ লাখ টাকা। তবে তা সবার ক্ষেত্রে না। ‘এ’ ক্যাটাগরির খেলোয়াড়ের মূল্য ২৫ লাখ টাকা, ‘বি’ র মূল্য ১৮ লাখ, ‘সি’ র মূল্য ১২ লাখ, ‘ডি’ র মূল্য ৮ লাখ, ‘ই’ র মূল্য ৫ লাখ টাকা।
managed wordpress hosting

সময় নিউজ২৪.কমক/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *