ভিক্টোরিয়া কলেজে রতন সাহার দুর্নীতির সন্ধানে দুদক টিম


Your personal, business or professional blog website is just a click away!

স্টাফ রিপোর্টার:
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের সদ্য বিদায়ী (ওএসডি হওয়া) অধ্যক্ষ রতন কুমার সাহার দুর্নীতির অভিযোগের বিষয়ে সত্যতা যাচাই করার জন্য দুর্নীতি দমন কমিশন থেকে চার সদস্যের একটি দল গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে কলেজের ডিগ্রি শাখার প্রশাসনিক ভবনে আসেন। কুমিল্লার সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের (কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও চাঁদপুর) সহকারি পরিচালক মোহাতাব উদ্দিনের নেতৃত্বে চার সদস্যের ওই দলটি শুরুতেই বর্তমান অধ্যক্ষ প্রফেসর রুহুল আমিন ভূইয়ার সাথে দেখা করেন। এসময় তারা বিদায়ী অধ্যক্ষের কর্মকাল ১৫ মাসের ব্যাংক হিসাবের বিবরণী চেয়েছেন। তাছাড়া কলেজের কোষাধ্যক্ষ আব্দুল হান্নানের কাছেও ভূয়া বিল ভাউচার, হিসাব পদ্ধতি সহ বিভিন্ন বিষয়ে জানতে চেয়েছেন।


চার সদস্যের দুদক টিমের প্রধান, কুমিল্লা সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোহাতাব উদ্দিন বলেন, কলেজ অধ্যক্ষের দুর্নীতির বিষয়ে দুদকের ১০৬ নম্বরে একটি অভিযোগ হয়েছিলো। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে দুদকের প্রধান কার্যালয়ের নির্দেশে প্রাথমিক সত্যতা যাচাই করার জন্য আমরা কলেজে গিয়েছিলাম। আগামি রবিবার বর্তমান কলেজ অধ্যক্ষ আমাদেরকে বিগত অধ্যক্ষ রতন কুমার সাহার সময়কার ব্যাংক বিবরণী সরবাহ করবেন। ব্যাংক বিবরণী সহ অন্যান্য ডকুমেন্টস পেলে আমরা বিশদভাবে বলতে পারবো।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে, কলেজের শিক্ষক ও কর্মচারীরা জানান, দুপুর ১২ টার দিকে দুদকের টিমটি প্রশাসনিক ভবনে এসে উপস্থিত হয়। পরে, সরাসরি কলেজের অধ্যক্ষের সাথে দেখা করেন এবং হিসাবরক্ষক আব্দুল হান্নানের সাথে কথা বলেন। দুদকের দলটি বেশিক্ষণ কলেজে ছিলোনা। প্রয়োজনীয় কাগজপত্রগুলো তাদের সরবরাহ করার জন্য বলেগেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চেয়ে, কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর রুহুল আমিন ভূইয়ার মোবাইলে কল করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

Your personal, business or professional blog website is just a click away!

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *