ভোট গ্রহণ শেষ, এখন ফলাফলের অপেক্ষা

অনলাইন ডেস্কঃ 

 আজ রোববার সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।নির্বাচনে সারাদেশে এখন পর্যন্ত ১২  জনের মৃত্যু হয়েছে। এরপরই বিভিন্ন জায়গা থেকে সংঘর্ষের খবর আসতে থাকে। প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্যমতে, চট্টগ্রাম, কুমিল্লা ও রাজশাহীতে দুইজন করে এবং নোয়াখালী, গাজীপুর, রাঙামাটি, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়, কক্সবাজার, নরসিংদী, নাটোর ও বগুড়ায় একজন করে নিহত হয়েছেন।দেশের ৩০০ সংসদীয় আসনের মধ্যে ২৯৯ আসনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। প্রার্থীর মৃত্যুজনিত কারণে গাইবান্ধা-৩ আসনে ভোটগ্রহণ পিছিয়ে ২৭ জানুয়ারি নির্ধারণ করা হয়েছে। এবারের ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সংখ্যা এক হাজার ৮৬১জন। এর মধ্যে রাজনৈতিক দলের প্রার্থীর সংখ্যা এক হাজার ৭৩৩ জন এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীর হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন ১২৮ জন প্রার্থী। দেশে ৩৯টি রাজনৈতিক দলের নিজস্ব প্রতীক থাকলেও এ নির্বাচনে জোটের মেরুকরণে অর্ধেক সংখ্যক দলই দুই মেরুতে ভিড়েছে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ তাদের জোটসঙ্গী বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, জাসদ, বিকল্পধারা ও তরীকত ফেডারেশনের ১৪ জনকে নৌকা প্রতীক বরাদ্দ দিয়েছে। আওয়ামী লীগ তাদের মহাজোটের শরিক জাতীয় পার্টির জন্য ২৬টি আসন ছেড়ে দিয়েছে। এ ছাড়া জাতীয় পার্টি ১৪৮টি আসনে মুক্তভাবে দলীয় লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছে। আর বিএনপি ধানের শীষ প্রতীক দিয়েছে গণফোরাম, জেএসডি, নাগরিক ঐক্য, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ, এলডিপি, খেলাফত মজলিস, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম, বিজেপি, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি, এনপিপি ও পিপিবির ৪৩ প্রার্থীকে। এর বাইরে জোটে থাকা অন্য দলগুলো নিজ নিজ প্রতীকে তাদের প্রার্থী দিয়েছে।

সময়নিউজ২৪.কম/ বি এম এম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *