মণিরামপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আবারো চাল আত্মসাতের অভিযোগ

মণিরামপুর(যশোর) প্রতিনিধি :
যশোর মনিরামপুর উপজেলার হরিহরনগর ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলামের বিরুদ্ধে হত দরিদ্র মহিলাদের নামে বরাদ্দ ভিজিডির ৫৭ বস্তা চাল আত্মসাত চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি জানাজানি হলে প্রকল্পের সদস্য সচিব উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সরেজমিন গিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের গোডাউনে বস্তাভর্তি চাল পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার(১৪ জানুয়ারি) সকালে তালিকাভূক্ত ৫৭ জন উপকারভোগী নারীদের মাঝে সেই চাল বিতরণ করা হয়।
জানা যায়, সরকার হত দরিদ্র মহিলাদের মধ্যে মাসে মাথাপ্রতি ৩০ কেজি হারে চাল বরাদ্দ করেন ভিজিডি কার্ডের মাধ্যমে। এরই ধারাবাহিকতার অংশ হিসেবে হরিহরনগর ইউনিয়নে ডিসেম্বর মাসে ভিজিডি কার্ডের মাধ্যমে ১৭৪ জন উপকারভোগী নারীর নামে ৫ হাজার ২২০ কেজি চাল বরাদ্দ করা হয়।
কিন্তু অভিযোগ রয়েছে গত নভেম্বর ডিসেম্বর মাসে ১১৭ জন উপকারভোগীর মধ্যে চাল বিতরন করা হয়। বাকী ৫৭ জন নারীর নামে বরাদ্দকৃত ৫৭ বস্তা (প্রতি বস্তায় ৩০ কেজি) চাল বিতরণ না করে ইউনিয়ণ পরিষদের গোডাউনে রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম।
এলাকায় প্রচার হয় চেয়ারম্যান ওই চাল আত্মাসাতের জন্য গোডাউনে রেখেছেন। এলাকাবাসীর এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে ভিজিডি প্রকল্পের সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ জাকির হাসান বিষয়টি খতিয়ে দেখতে প্রকল্পের সদস্য সচিব উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মৌসুমি আকতার ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) প্রকৌশলী এসএম আবু আব্দুল্লাহ বায়েজিদকে নির্দেশ দেন।
ফলে এ দুই কর্মকর্তা বুধবার বিকেলে সরেজমিন গিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের গোডাউনে ৫৭ বস্তাভর্তি চাল সনাক্ত করেন।
ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম চাল আত্মসাত চেষ্টার অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, ৫৭ জন উপকারভোগী না আসায় তাদের নামে বরাদ্দকৃত ৫৭ বস্তা চাল তিনি গোডাউনে সংরক্ষন করেন।
প্রকল্পের সদস্য সচিব উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মৌসুমি আকতার জানান, ৫৭ জন উপকারভোগেী মহিলা নির্ধারিত সময় (ডিসেম্বর মাস) কাজের ব্যস্ততার কারনে আসতে না পারায় চাল বিতরণ করা সম্ভব হয়নি। ফলে বৃহস্পতিবার সকালে ওই উপকারভোগীদের মধ্যে চাল বিতরণ করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে ভিজিডির ৪০০ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয় হরিহরনগর ইউনিয়ন পরিষদের পাশের একটি গোডাউন থেকে। এই ঘটনায় দোষারোপ করে ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইলামের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল।
সময় নিউজ২৪.কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *