মায়ের ওপর অভিমান কাল হয়ে দাঁড়ালো স্কুল শিক্ষার্থীর;গণধর্ষণের শিকার হয়ে হাসপাতালে ভর্তি

সুজন কুমার,নাটোরঃ
নাটোরের নলডাঙ্গায় মায়ের ওপর অভিমান করে বাড়ি থেকে বের হয়ে এক স্কুল শিক্ষার্থী গণধর্ষনের শিকার হয়েছে। এই ঘটনায় ৫জনকে আটক করেছে পুলিশ।বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে সদর উপজেলার ছাতনী এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো, একই এলাকার শহিদুল ইসলাম, শরিফুল ইসলাম, কাজল হোসেন, আসাদুল ইসলাম এবং আমিনুল ইসলাম।
পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, নলডাঙ্গা উপজেলার মাধনগর এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে এক স্কুল শিক্ষার্থী মায়ের উপর অভিমান করে বাড়ি থেকে খালার বাড়ি ছাতনীর উদ্দেশ্যে বের হয়। পথে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ছাতনী দিয়ার এলাকায় পৌঁছলে শহিদুল ইসলাম নামে এক যুবক তাকে খালার বাড়ি পৌঁছে দেবার কথা বলে কৌশলে ওই এলাকার এক লেবু বাগানে নিয়ে যায়।সেখানে সে সহ আরও সাতজন ওই শিক্ষার্থীকে গণধর্ষণ করে। একপর্যায়ে মেয়েটির চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে গেলে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। পরে রাতেই অভিযান চালিয়ে গণধর্ষণকারী পাঁচজনকে আটক করে পুলিশ।
এঘটনায় আরও তিন ধর্ষণকারী পলাতক রয়েছে।বর্তমানে মেয়েটিকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদি হয়ে আটজনকে অভিযুক্ত করে দুপুর একটায় সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *