মুজিববর্ষ উপলক্ষে ডিমলায় গৃহহীন পরিবারের মাঝে গৃহ সহ জমি হস্তান্তরের উদ্বোধন

সুজন মহিনুল,বিশেষ প্রতিনিধি।।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী মুজিববর্ষ উপলক্ষে নীলফামারীর ডিমলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর প্রথম পর্যায়ের ভুমিহীন ও গৃহনীয় পরিবারের মাঝে জমি সহ গৃহ হস্তান্তরের উদ্বোধন করা হয়েছে।

শনিবার(২৩ জানুয়ারি)গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ডিমলা উপজেলার ১৮৫টি ভুমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে জমি ও গৃহ প্রদানের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।এ উপলক্ষে উপজেলা হলরুমে ও খগাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের বন্দর খড়িবাড়ি ডাঙ্গা পাড়া গ্রামে উক্ত ইউনিয়নের সকল সুবিধাভোগীদের মাঝে জমির কবুলিয়ত সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র এবং কয়েকটি গৃহ হস্তান্তরের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।
উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অন্যাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা তবিবুল ইসলাম,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়শ্রী রানী রায়, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নিরেন্দ্র নাথ রায় নিরু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েশা সিদ্দিকা,উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেজবাহুর রহমান মানিক,উপ-সহাকারী প্রকৌশলী ফেরদৌস আলম, ভুমি অফিসের সার্ভেয়ার কামরুল ইসলাম, খগাখড়িবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম লিথন, বালাপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম ভুইয়া ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আনোয়ারুল হক সরকার মিন্টু সহ সুবিধাভোগীরা।
উল্লেখ্যঃ আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর প্রথম পর্যায়ে ডিমলা উপজেলায় ৭টি ইউনিয়নে ১৮৫টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার জমি সহ ঘর বরাদ্দ পেয়েছেন।তাদের মধ্যে ডিমলা সদর ইউনিয়নে ৩০টি,বালাপাড়া ইউনিয়নে ৫০টি,খগাখড়িবাড়ি ইউনিয়নে ৪০টি,খালিশা চাপানী ইউনিয়নে ৩০টি,পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নে ১৫টি,টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়নে ১০টি ও ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নে ১০টি।দুই শতাংশ জমির উপর প্রতিটি ৩৯৪ বর্গফুট আয়তনের ইটের দেয়াল, কংক্রিটের মেঝে এবং টিনের ছাউনি দিয়ে তৈরি দুই কক্ষবিশিষ্ট সেমিপাকা ঘরে একটি টয়লেট, একটি রান্নার কক্ষ, ইউটিলিটি স্পেস ও বারান্দা রয়েছে। প্রতিটি ঘরের নির্মাণ ব্যয় ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা ও পরিবহন খরচ বাবদ ৪ হাজার টাকা সহ মোট ১লাখ ৭৫ হাজার টাকা বরাদ্দ রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *