মুরাদনগরে সনদ জালিয়াতির অভিযোগে দুদকের মামলায় শিক্ষক গ্রেপ্তার

সফিকুল ইসলাম, মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:

কুমিল্লার মুরাদনগরে সনদ জালিয়াতির অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)’র দায়ের করা মামলায় নজরুল ইসলাম (৩৬) নামের এক স্কুল শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে বাঙ্গরা বাজার থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার বাইড়া গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত নজরুল ইসলাম বাইড়া মো: আরিফ উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের কম্পিউটার শিক্ষক এবং বাইড়া গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানাধীন টনকী ইউনিয়নের বাইড়া গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে নজরুল ইসলাম ২০০৪ সালে শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের অধিনে জাতীয় বহুভাষী সাটলিপি প্রশিক্ষন ও গবেষণা একাডেমি (নট্রামস) এর নাম ব্যবহার করে বহুভাষী শর্টহ্যান্ড বিষয়ক জাল প্রশিক্ষন সনদ (সিরিয়াল-১৪২১৫, রেজি:১৩৬২১) তৈরী করে বাইড়া মো. আরিফ উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজে চাকুরী গ্রহন করেন। ভূয়া ও জাল সনদ দিয়ে চাকুরী গ্রহনের মাধ্যমে তিনি ২০০৪ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত বেতন ভাতা ও সরকারি অনুদান (এমপিও) বাবদ মোট ১৬ লক্ষ ১ হাজার সাত টাকা উত্তোলন করেন। ২০১৮ সালে দুদক ঘটনার সত্যতা পেয়ে ভূয়া সনদ ব্যবহার করে চাকুরী গ্রহনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠান ও সরকারি অর্থ আত্মসাৎ এর অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন কুমিল্লা জেলা কার্যালয়ে উপ-সহকারী পরিচালক মোস্তফা বোরহান উদ্দিন আহাম্মদ বাদী হয়ে বাঙ্গরা বাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলার একমাত্র অভিযুক্ত ও পরোয়ানা ভুক্ত আসামী নজরুল ইমলামকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ব্যাপারে বাঙ্গরা বাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, দুদকের মামলায় বিজ্ঞ আদালতের জারিকরা গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
মোতাবেক আসামিকে আটক করে শুক্রবার দুপুরে কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *