মোংলায় আলোচনাসভায় উপ-মন্ত্রী হাবিবুন নাহার- বাল্য বিবাহ ও যৌতুক প্রথা আমাদের সমাজের জন্য একটি ব্যাদি

মোংলা প্রতিনিধি:

পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়ের উপ-মন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার বলেছেন বর্তমান সরকার মানুষকে ভাল রাখা ও দেশকে এগিয়ে নেয়ার জন্য বদ্ধ পরিকর। তাই সমাজকে উন্নয়নের দিকে নেয়ার জন্য মানুষকে সুস্থ্য ও সচেতন থাকতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গীকার বাস্তবায়নের লক্ষে আগামী ২০২১ সালের মধ্যে যৌতুক এবং বাল্য বিবাহ সম্পুর্ন ভাবে শুন্যের কোঠায় নামিয়ে আনার জন্য কাজ করে যাচ্ছে তাই প্রধানমন্ত্রীর এ প্রতিশ্রুতি সফল করার জন্য কাজী, পুরহিত, ইমামসহ সকলে প্রতি আহবান জানায় উপমন্ত্রী। তিনি আরো বলেন, বাল্য বিবাহ ও যৌতুক প্রথা আমাদের সমাজে এখন একটি ব্যাদি হিসেবে পরিনত হয়েছে।

সমাজে যৌতুক ও বাল্য বিবাহ অনেকগুন বৃদ্ধি পাওয়ায় সামাজিক অবক্ষয় দেখা দিয়েছে। যেমন সচেতন হয়না অভিভাবকরা তেননী যারা জন প্রতিনিধি অথবা সমাজের গন্যমান্য ব্যাক্তিরা থাকে তাদেরও গফেলতীর কারনে এখন চরম আকার দারন করেছে। যৌতুক যেমন নেয়া অপরাদ তেমন দেয়াও অপরাদ। মা বাবারা যদি সচেতন থেকে একটি মেয়েকে লেখাপড়া করিয়ে মানুষের মত মানুষ তৈরী করতে পারে তবে সে মেয়েটা সমাজের কাছে বোঝা নয়, সে মেয়ের জন্য যৌতুক দিতে হয়না।

একটা শিক্ষিত এবং চাকরীজিবী মেয়েকে সবাই বিয়ে করে ঘরে তুলতে চায়। কিন্ত যদি মেয়ে অশিক্ষিত থাকে তখনই মা বাবা বাল্য বিয়ে দেয়ার জন্য তাড়াহুড়া করতে থাকে আর তখনই চলে আসে যৌতুক বা নারী নির্যাতনের বিষয়। মোংলায় বাল্য বিবাহ ও যৌতুক প্রতিরোধ মুলক আলোচনাসভায় তিনি একথা বলেন। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উদ্যোগে ইমাম, কাজী, পুরহিত ও সুধীজনদের সমন্নয় উপজেলা অফিসার্স ক্লাবে এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়ের উপ-মন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার।

এসময় উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, ভাইস চেয়ারম্যা মোঃ ইকবাল হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন নাহার হাই, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নবনিতা দত্ত, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বাবু সুনিল কুমার বিশ্বাস, সাধারন সম্পাদক মোঃ ইব্রাহিম হোসেন, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র আলহাজ্ব শেখ আঃ সালাম, সাধারন সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা মেখ আব্দুর রহমান, সোনাইলতলা ইউপি চেয়ারম্যান নার্জিনা বেগ নাজিনা, মোল্লা মোহাম্মাদ তরিকুল ইসলামসহ উপজেলা পরিষদের কর্মকর্তা ও আওয়ামী দলীয় নেতা কর্মীরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

পরে দুপুর তিনটায় মোংলা সরকারী কলেজে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযোদ্ধা কর্নার উদ্ভোদন করেন উপমন্ত্রী। এছাড়াও মোংলা পোর্ট পৌরসভার বিধুবা ও বস্কদের জন্য সরকারের দেয়া ভাতার কার্ড প্রদান করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে দলীয় কার্যলয় প্রস্তুতি মুলক সভায় অংশ গ্রহন করেন উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার।

 

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *