মোংলা-খুলনা নির্মানাধিন রেললাইন নির্মান কাজের পরিদর্শন করেছেন রেল মন্ত্রী

মোংলা প্রতিনিধি
মোংলা-খুলনা রেল লাইন নির্মান কাজ ২০২২ সালের মধ্যে শেষ করা হবে। এর পর মোংলা বন্দরের সাথে উত্তরাঞ্চলের পঞ্চগড়, বাংলাবান্ধা এবং ভারতের শিলিগুলির সাথে রেলপথ সংযুক্ত হবে। এর পর ট্রানজিট সুবিধায় মোংলা বন্দর থেকে ভারত, নেপাল ও ভুটান এর পন্য সড়ক পথে পরিবহন করতে পারবে।
গতকাল ৪ জুলাই বৃহস্পতিবার বিকালে মোংলা-খুলনা রেল লাইনের চলমান নির্মান কাজের অগ্রগতি পরিদর্শনকালে মোংলায় রেলপথ মন্ত্রনালয়ের দায়িত্ব প্রাপ্ত মন্ত্রী মোঃ নুরুল ইসলাম সুজন গণমাধ্যমের কাছে এমন কথা বলেন।

পরিদশনের সময় তার সাথে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ইয়াসমিন আফসানা, বাগেরহাট জেলা প্রশাসক মোঃ মামুনুর
রশিদ,মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রাহাত মান্নানসহ রেল বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

পরে মন্ত্রী নতুন রেল পথ নির্মান কাজের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা,বন্দরকর্তৃ পক্ষের কর্মকর্তা ও সরকারের উন্নোয়ন কর্মকান্ডে জড়িত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিয়ে মোংলায় বন্দর কতৃপক্ষের পারিজাত ভবনে বৈঠক করেন।

এ সময় মন্ত্রী নতুন রেল পথ নির্মান কাজে মোংলা বন্দর কতৃপক্ষের সার্বক্ষনিক সহযোগীতা কামনা করেন। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্ধের ওই প্রকল্পটি ২০১৫ সালে একনেক সভায় অনুমোদন হয়। খুলনা-মোংলা নির্মানাধীন রেললাইন প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে তিন হাজার ৮০১ কোটি ৬১ লাখ টাকা।

এরমধ্যে রেললাইনে ব্যয় হবে এক হাজার ১৪৯ কোটি ৮৯ লাখ টাকা, রুপসা ঘাটে চলমান ব্রিজের জন্য এক হাজার ৭৬ কোটি ৪৫ লাখ টাকা ও ভুমি অধিগ্রহণে এক হাজার আট কোটি টাকা ব্যায় করা হয়েছে।

সময়নিউজ২৪.কম/ বি এম এম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *