মোংলা পোর্ট পৌরসভার উন্নয়ন কর্মকান্ড আরো একধাপ এগিয়ে

মোংলা প্রতিনিধি
আর্ন্তজাতিক মোংলা সমুদ্র বন্দরের উন্নয়নের পাশাপাশী প্রথম শ্রেনীর মোংলা পোর্ট পৌরসভাকেও গতিশীল ও উন্নয়ন করা দরকার। তাই বর্তমান খুলনা সিটি কর্পেরেশনের মেয়র প্রতিমন্ত্রী তালুকদার আব্দুল খালেক ও তার সহধর্মীনীর সুনজরে এ বন্দর উন্নয়নে গতিশীল বেড়েছে।

এ বন্দরে ও পৌরসভার প্রতি তাদের নেতৃত্ব আর ভাল মনোভাব যদি থাকে তাহলে ভবিষ্যতেও
মোংলাপোর্ট পৌরসভায় বিশ্ব ব্যাংকের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

মোংলা পোর্ট পৌরসভায় গত ৫-৭ বছরের যে উন্নয়ন হয়েছে তা নিয়ে মেয়র প্রসংশার দাবিদার। বিশেষ করে পৌরসভার উন্নয়নমূলক কার্যক্রমে নারীদের সম্পৃক্ত করার একটি ভাল দিক বলে আমরা মনে করি। বর্তমানে যে প্রকল্পগুলো চলমান জুন ২০২০ সালের মধ্যে এ প্রকল্পের কাজ শেষ করতে না পারলে ফান্ড রিলিজ করা সম্ভব হবে না। তাই সকলকে আহবান জানাবো যারা কাজের সাথে সংশ্লিস্ট তাদের সহযোগিতা করার জন্য। যাতে ঠিক সময়ে মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করা যায়।

৯ জুলাই সকাল সাড়ে ১১টায় মোংলা দিগরাজ শিল্প এলাকায় পৌর মাল্টিপারপাস মার্কেটের উর্ধ্বমূখী সম্প্রসারণ ও বাউন্ডারি নির্মান কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের টাস্ক টিম লিডার সিনিয়র নগর বিশেষজ্ঞ ক্বব্বেনা আমাংকা আইহে এ কথা বলেন।

দ্বিগরাজ মার্কেট চত্বরে পৌরসভা আয়োজিত নির্মান কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র আলহাজ্ব মোঃ জুলফিকার আলী।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের টেকনিক্যাল স্পেশালিস্ট মোঃ সিহাব উদ্দিন ও
মিউনিসিপ্যাল গর্ভনেন্স এন্ড সার্ভিসেস প্রজেক্ট’র ম্যানেজার এ কে এম কামরুজ্জামান।

এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্যানেল মেয়র মোঃ আলাউদ্দিন,বাজার মসজিদের খতিব মাওালানা তৈয়বুর রহমান, কাউন্সিলর আব্দুর রাজ্জাক,বাবুল চৌধুরী, খোরশেদ আলম, আয়েশা বেগম, জাহানারা পারভীনসহ আরো অনেকে।

বিশ্ব ব্যাংকের টেকনিক্যাল বিশেষজ্ঞ মোঃ সিহাব উদ্দিন বলেন, ৩১ মার্চ ২০২০ সালের মধ্যে এ প্রকল্পের সকল কাজ শেষ করতে হবে। সক্রিয় ভাবে সংশ্লিষ্টদের কাজ করতে হবে। আগামী ১৫ দিন পর পর কাজ মনিটরিং করা হবে। কাজের অগ্রগতি গুনগতমান ভাল না হলে যতটুকু সম্ভব ততটুকু অর্থ ছাড় করা হবে। চলমান প্রকল্প মানসম্মত ভাবে সম্পন্ন হলে ভতিষ্যতে মোংলাপোর্ট পৌরসভা আরো উন্নয়ন মুলক কাজের জন্য ভাল প্রকল্প পেতে পারে।

অন্য বক্তারা বলেন, মোংলা বন্দর সংলগ্ন এলাকা চতুর্দিকে শিল্প কল কারখানা রয়েছে। এর সুন্দার্যের জন্য পৌরসভা এলাকা একটি ট্যুরিস্ট স্পট হতে পারে। সময় মতো চলমান কাজ শেষ না হলে প্রজেক্ট ছোট হয়ে যেতে পারে। তাই প্রকল্প বাস্তবায়নে এখনই দ্রুত গতিতে কাজে নেমে পড়তে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে পৌর মেয়র মোঃ জুলফিকার আলী উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে খুলনা সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এবং উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার এমপি সার্বক্ষণিক তদারকি এবং সহযোগিতা করায় তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

বাংলাদেশ মিউনিসিপ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফান্ড (বিএমডিএফ) এবং মিউনিসিপ্যাল গভর্নেন্স এন্ড সার্ভিসেস প্রজেক্ট’র (এমজিএসপি) আওতায় বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে ১০ কোটি ৮৮ লাখ টাকা
ব্যয়ে মোংলার দিগরাজে পৌর মার্কেট উর্ধ্বমূখী সম্প্রসারণ হচ্ছে।

এর আগে এই মার্কেটের একই প্রকল্পের মাধ্যমে ৫ কোটি ৬৭ লাখ টাকা ব্যায়ে দুইতলা বিশিষ্ট ভবন নির্মান করা হয় যেটির এখন উর্ধ্বমূখী সম্প্রসারণ হচ্ছে।

এছাড়া বিএমডিএফ এবং এমজিএসপি প্রজেক্ট’র মাধ্যমে ৫কোটি ১০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে মোংলা পোর্ট পৌরসভার আধুনিক পৌর ভবন নির্মান কাজও ঘুরে দেখেন বিশ্ব ব্যাংকের টাস্ক টিম লিডার ক্বব্বেনা
আমাংকা আইহে।

সময় নিউজ২৪.কম/বি এম এম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *