যশোরে তরুণী ধর্ষণের শিকার: যুবক গ্রেফতার

নিলয় ধর, যশোর প্রতিনিধি :-
বান্ধবীর বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে যশোরে এক তরুণী (২০) ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন। পুলিশ অভিযুক্ত ধর্ষক মানিককে গ্রেফতার করেছে।মানিক যশোর শহরের বারান্দীপাড়া বউবাজার এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে। এই ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে কোতয়ালী থানায় মামলা করা হয়েছে।
পুলিশ ওই তরুণীকে আদালতে সোপর্দ করেন। ম্যাজিস্ট্রেট জবানবন্দি গ্রহণ করে তাকে নিরাপত্তা হেফাজতে পাঠিয়েছেন।
ঘটনার পর ওই তরুণী সোমবার গভীর রাতে কোতয়ালী থানায় মানিকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।
মামলায় তিনি উল্লেখ করেছেন, দিনাজপুর জেলার বাসিন্দা তিনি। গত (২২ অক্টোবর) তিনি দিনাজপুর জেলা থেকে যশোর শহরের বারান্দীপাড়া বউবাজার এলাকায় বান্ধবী মরিয়মের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। এখানে এসে বান্ধবী মরিয়মের চাচাতো ভাই মানিকের সঙ্গে তার পরিচয়।
প্রথম দেখাতে মানিক তাকে ফুঁসলাতে থাকেন। এক পর্যায়ে যুবতীকে বিয়ের প্রস্তাবও দেয়। পরের দিন শুক্রবার ২৩ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মানিক ও তার বাবা-মা ওই তরুণীকে যশোরের একটি অফিসে নিয়ে যান। সেখানে তাকে একটি কাগজে স্বাক্ষর করানো হয়। ২৩ অক্টোবর রাত ১০টা থেকে পরের দিন ২৪ অক্টোবর সকাল ৭টা পর্যন্ত মানিক তাকে একাধিক বার ধর্ষণ করেন। এতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়ে। অসুস্থ হয়ে পড়লে মানিক তার সঙ্গে খারাপ আচরণ করা ছাড়াও মারধর পর্যন্ত করেন। একপর্যায়ে বাড়ি থেকে বের করে দেন।
উপায়ন্তর না পেয়ে তিনি মানিকের এক আত্মীয়র কাছে আশ্রয় নেন। সেখান থেকে গোপনে ‘যশোর জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার’ নামে একটি এনজিও’র অফিসে ফোন করে ঘটনার বিষয় অবহিত করেন। এনজিওটির কর্মকর্তা শাওলী সুলতানা ও আসাফুর রহমান কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশকে বিষয়টি জানান। খবর পেয়ে মানিককে গ্রেফতার করেন পুলিশ। ওই তরুণী বাদী হয়ে মানিকের বিরুদ্ধে মামলা করেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মানিক পুলিশের কাছে অভিযোগ স্বীকার করেছে।
পুলিশ জানিয়েছেন, তরুণীর অভিভাবক এখানে না থাকায় ও নিরাপত্তার কথা ভেবে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছিলো।
কোতয়ালী থানার ইনসপেক্টর (তদন্ত) শেখ তাসমিম আলম জানিয়েছেন, ওই তরুণী মঙ্গলবার ২২ ধারার জবানবন্দি দিয়েছেন। আদালত তাকে নিরাপত্তা হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আর অভিযুক্ত মানিককে জেলহাজতে পাঠান।
সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *