যশোর কোতয়ালি থানা পুলিশের ওসি অপূর্ব হাসানকে বদলি

যশোর প্রতিনিধিঃ

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অপূর্ব হাসানকে বদলি করা হয়েছে। সোমবার পুলিশ সদর দপ্তর থেকে তার বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপ নেয়া হয়। তাকে শিল্প-পুলিশে যোগদান করতে বলা হয়েছে। গত বছর ১০জুলাই অপূর্ব হাসান বেনাপোল পোর্ট থেকে যশোর কোতয়ালি মডেল থানায় যোগদান করেছিলেন।

যশোর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বিশেষ শাখা) আনছার উদ্দিন জানিয়েছেন, পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশে যশোর কোতয়ালি মডেল থানার (ওসি) অপূর্ব হাসানকে স্ট্যান্ডরিলিজ করা হয়েছে। তাকে শিল্প পুলিশে যোগদানের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

জানা যায়, সম্প্রতি যশোরে পরপর কয়েকটি হত্যাকান্ড ও ছুরিকাঘাতসহ অপরাধ বেড়ে যাওয়ায় আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি আলোচনায় উঠে আসে। এক মাসের ব্যবধানে যশোর শহর ও শহরতলীতে অন্তত ৫টি হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। সর্বশেষ গত ২০ জুন সন্ধ্যায় বাহাদুরপুর এলাকায় ছুরিকাঘাতে প্রাণ যায় দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া মাদরাসা ছাত্র সম্রাটের। একই দিন শহরের খোলাডাঙ্গা এলাকা থেকে ড্রামবন্দি সিনবাদ নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়। 

এর আগে ১৮ জুন শহরের শংকরপুর বাস টার্মিনাল এলাকায় সানি নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করে দলীয় প্রতিপক্ষের লোকজন। ১৩ জুন শহরের সন্যাসী দীঘির পাড় এলাকায় ছুরিকাঘাতে ফেরদৌস (২০) নামে এক যুবক নিহত হন। গত ০৬ জুন যশোরের রায়পাড়ায় ৫ম শ্রেণির ছাত্র টিবি ক্লিনিক এলাকার আব্দুল্লাহকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। আর গত ২০ মে বাহাদুরপুর এলাকায় ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয় জুটমিল শ্রমিক শহীদ কাজীকে।

এ হত্যাকান্ডের পাশাপাশি গত ২০ জুন রাতে যশোরে পুলিশের বিরুদ্ধে সুফিয়া খাতুন (৫০) নামে অসুস্থ এক নারীর পেটে লাথি মারার অভিযোগ ওঠে। শহরের খড়কি হাজামপাড়া এলাকায় শ্রাবণী নামে মহিলাকে ধরতে যান  কোতয়ালি থানার (এসআই) বিপ্লব ও ইকবাল ওই নারীর পেটে লাথি মারেন। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত দু’কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের পরিবর্তে ওই নারী ও তার পরিবারকে উল্টো চাপ দিতে থাকে। এক পর্যায়ে ওই নারী চিকিৎসা সম্পন্ন না করেই হাসপাতাল ছাড়তে বাধ্য হন।

এর আগে গত ১৫ জুন বিকেলে উপশহর এলাকা থেকে অপহরণের শিকার হয় যশোর উপশহর বালিকা বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী ও সদর উপজেলার পাগলাদহ গ্রামের তরিকুল ইসলামের মেয়ে তানিয়া ইসলাম বৃষ্টি (১৪)। অপহরণের বিষয়ে কোতয়ালি থানায় অভিযোগ দিলেও এক সপ্তাহ ঘুরিয়েও পুলিশ মামলা নেয়নি। সর্বশেষ এই দুটি ঘটনা নিয়ে ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি হয়।

সময় নিউজ২৪.কম /বি এম এম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *