রাজনীতিতে নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে : মোস্তফা

নারী ও পুরুষের সমতাভিত্তিক সমাজ ও রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে গেলে সিদ্ধান্ত গ্রহণের পর্যায়ে নারীর অবস্থান থাকতে হবে বলে মন্তব্য করে বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, রাজনীতিতে নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে, যেন তাঁরা সমাজপরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেন।বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তিন নারী নেত্রীর বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ’এর প্রাথমিক সদস্য পদ পূরনের মাধ্যমে জেবেল রহমান গানির নেতৃত্বের প্রতি আস্থা জ্ঞাপন করে দলে যোগদান করলে তাদের স্বাগত জানিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বাংলাদশের রাজনীতিতে বহুদিন ধরে নারী নেতৃত্ব চললেও সার্বিকভাবে রাজনীতিতে নারীর অংশগ্রহণ সুখকর নয়। মানুষ হিসেবে, দেশের নাগরিক হিসেবে নারীর অধিকার আছে রাজনীতিতে অংশগ্রহণের। নারীর জীবন নিয়ে নিজের সিদ্ধান্ত গ্রহণের স্বাধীনতা এখনো এই দুহাজার একুশ সালেও সীমিত। কোনো যোগ্য নারী এখনো চাইলেই তার মতামত প্রতিষ্ঠা করার সুযোগ পান না, বরং পরিবার থেকে, রাষ্ট্র থেকে তীব্র বাধার সম্মুখীন হন। এই বাধা অতিক্রম করে নারীকেই এগোতে হবে।

তিনি আরো বলেন, একজন রাজনীতিবিদ সে নারী-পুরুষ যেই হোন না কেন, সাধারণ কেউ নন, তিনি সমাজের প্রতিনিধি, রাষ্ট্রের প্রতিনিধি। তাকে অনুসরণ করেই সমাজ গড়ে উঠবে। জাতি গড়ে উঠবে। রাজনীতিবিদদের প্রতি জনগণের যেন শ্রদ্ধা তৈরি হয় সেই অনুশীলন করা জরুরি। মেধাবী নারীরা বেশি বেশি রাজনীতিতে প্রবেশ করলে দেশ পাল্টাবেই। কারণ নারীর মানসিক গঠন পুরুষের চেয়ে অনেক বেশি শক্তপোক্ত প্রমাণিত।যোগদানকৃত নারী নেত্রীরা হলেন মিতা রহমান, আনোয়ারা বেগম, লি রহমান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ন্যাপ ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল ভুইয়া, সাহিত্য-সাংস্কৃতিক সম্পাদক মতিয়ারা চৌধুরী মিনু, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেন, মহানগর নেতা হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *