‘শোভন সমাজের সন্ধানে’ বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির পঞ্চম সভা

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

শিক্ষাবিজ্ঞানপ্রকৃতি: শোভন বাংলাদেশের সন্ধানেশিরোনামে ওয়েব সেমিনার করেছে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতিগণমানুষের অর্থনীতিবিদ হিসেবে খ্যাত অধ্যাপক আবুল বারকাতের সদ্য প্রকাশিত বড় পর্দায় সমাজ-অর্থনীতি-রাষ্ট্র: ভাইরাসের মহাবিপর্যয় থেকে শোভন বাংলাদেশের সন্ধানেগবেষণাগ্রন্থটির বিষয়বস্তু ঘিরে ১৩ সিরিজের আলোচনা সভার পঞ্চম পর্বটি অনুষ্ঠিত হয় ১০ এপ্রিল শনিবার সন্ধ্যা সাতটায়ঢাকায় অর্থনীতি সমিতির কার্যালয় থেকে

নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটির অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক গৌর গোবিন্দ গোস্বামীর সঞ্চালনায় এতে আলোচক হিসেবে অংশ নেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ও পরিবেশ বিজ্ঞানী আমির হোসেন খানকমখরচেভূগর্ভস্থআর্সেনিকযুক্তপানিপরিশোধনেরপদ্ধতিআবিষ্কারক বাংলাদেশি বিজ্ঞানী ও যুক্তরাষ্ট্রের জর্জ ম্যাসন বিশ্ববিদ্যালয়েরসায়ন ও জৈব রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক আবুল হুসসামসিঙ্গাপুর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাষাবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সাখাওয়াৎ আনসারী

অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বাংলাদেশের আর্থিক অবস্থার উন্নতি এখন সবার কাছে প্রশংসনীয়। এই উন্নতি এসেছে ঠিকই, কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে আমাদের পরিবেশ হয়েছে দূষিত। কারণ উন্নতি হচ্ছে ও হয়েছে অপরিকল্পিত ও নীতিমালা বহির্ভূত। এভাবে চলতে দেওয়া যায় না। আর এই সময়ে আমরা পেয়েছি অধ্যাপক আবুল বারকাতের একটি গ্রন্থ বড় পর্দায় সমাজ-অর্থনীতি-রাষ্ট্র: ভাইরাসের মহাবিপর্যয় থেকে শোভন বাংলাদেশের সন্ধানে। এই বইয়ে তিনি যে প্রস্তাবনাগুলো দিয়েছেন, আমার মতে উনি একজন দার্শনিক। তিনি প্রস্তাব করেছেন প্রকৃতির সঙ্গে মিলেমিশে চলার কথা। কারণ আমরা প্রকৃতির বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে ভুল করেছি। সেজন্য আমরা কোভিড-১৯ এর মতো মহামারীতে আক্রান্ত হচ্ছি। সুস্থভাবে বাঁচতে হলে উৎপাদন আমাদের বাড়াতেই হবে, তবে প্রকৃতিকে আক্রান্ত না করে।

অধ্যাপক সাখাওয়াৎ আনসারী বলেন, অধ্যাপক আবুল বারকাত এ বইটি লিখেছেন মানুষের উদ্দেশ্যে, কিন্তু তার বিষয়বস্তু গোটা প্রকৃতি। তিনি জানাচ্ছেন প্রকৃতি অসীম, কিন্তু মানুষ সসীম।…তিনি শিক্ষাব্যবস্থা সংস্কারের কথা বলেছেন। তার মতে, শিক্ষাকে ব্যয় মরে করলে তা অপচয় বলে মনে হয়, শিক্ষা হলো বিনিয়োগ। শিক্ষা খাত নয়, বরং ব্যবস্থা।

অধ্যাপক আবুল হুসসাম বলেন, পৃথিবীতে নতুন জিওলজিক্যাল এরা শুরু হয়েছে। নতুন মহামারী এসেছে। এসময়ে অর্থনীতি সমিতির এই সেমিনার খুব প্রাসঙ্গিক। কোভিড-১৯ আমাদের বুঝিয়ে দিয়েছে আমরা কোথায় আছি। এই সময়ে যে দেশগুলো শিক্ষা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিকে গুরুত্ব দিয়েছে তারা তুলনামূলক ভালো আছে। একসময় বাংলাদেশেই পঞ্চাশের দশকে আইসিডিডিআরবিতে টিকা আবিষ্কার হতো, কিন্তু অবহেলায় অপরিচর্যায় সেসব বন্ধ হয়ে গেছে, বিজ্ঞানীরা দলে দলে দেশ ছেড়ে বিদেশে গেছেন।…এখন বিজ্ঞানও যদি চর্চার বদলে মুখস্থ করা হয় তাহলে ধর্ম ও বিজ্ঞানের পার্থক্য থাকে না। আমাদের শিক্ষাব্যবস্থার মৌলিক দুর্বলতাগুলো নিয়ে ভাবতে হবে।অধ্যাপক ও পরিবেশ বিজ্ঞানী আমির হোসেন খানপরামর্শ দিয়ে বলেন,যারা রাষ্ট্রপরিচালনার সঙ্গে যুক্ত তাদের উচিত অধ্যাপক আবুল বারকাতের এ বইটা পড়া।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ও প্রাক্তন চেয়ারম্যান এবং জাপানিজ স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ও প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আবুল বারকাতের ২০ বছরের গবেষণার ফসল বড় পর্দায় সমাজ-অর্থনীতি-রাষ্ট্র: ভাইরাসের মহাবিপর্যয় থেকে শোভন বাংলাদেশের সন্ধানেবইটি যৌথভাবে প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি ও মুক্তবুদ্ধি প্রকাশনা৭১৬ পৃষ্ঠার এ বইটি সম্পর্কে অভিনন্দনবাণী দিয়েছেন ভাষাবিজ্ঞানী, দার্শনিক ও সমাজ সমালোচকঅধ্যাপক নোয়াম চমস্কিকৃতজ্ঞতাপত্রমুখবন্ধ ও মোট ১২টি অধ্যায় ছাড়াও বইটিতে আছে ২৭টি সারণি৩৯টি লেখচিত্রতথ্যপঞ্জি ও নির্ঘণ্ট

এ বইটি নিয়েই বড় দাগে ১৩টি ভার্চুয়াল আলোচনার এ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত পূর্বের চারটি সেমিনারের বিষয়বস্তু ছিল:শোভন সমাজ ধারণাবৈষম্যঅসমতাদারিদ্র্যশ্রেণিএবংকোভিড১৯উদ্ভূতপরিবর্তন, ৩নারীরক্ষমতায়নএবংশিশুরবিকাশ, ৪ভূমিকৃষি

সমিতির পরবর্তী ষষ্ঠ সভাটিঅনুষ্ঠিত হবে আসছে ১৭ এপ্রিল শনিবার দুপুর আড়াইটায় শিল্পায়ন: শোভন বাংলাদেশের সন্ধানেশিরোনামেএতে বক্তা হিসেবে আছেন ঢাকা স্কুল অব ইকনোমিকস ও পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) এর চেয়ারম্যান কাজী খলীকুজ্জমান আহমদঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অর্থনীতি বিভাগের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অধ্যাপক শফিক-উজ জামান এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় অর্থনীতি বিভাগের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. মোয়াজ্জেম হোসেন খানসভা সঞ্চালনা করবেন বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সাধারণ সম্পাদক জামালউদ্দিন আহমেদ

১৩ পর্বের ভার্চুয়াল আলোচনাসভার অন্যান্য বিষয়বস্তুগুলোহলো:শোভন সমাজ ও মূলধারার সামাজিক বিজ্ঞানজনগণের স্বাস্থ্য,ধর্মভিত্তিক সাম্প্রদায়িকতা-মৌলবাদ-জঙ্গীবাদসামষ্টীক ও ব্যষ্টিক অর্থনীতিবিশ্বায়নশোভন সমাজ নির্মাণে রাষ্ট্র টাকা পাবে কোথায়কালো টাকাঅর্থপাচার এবং শোভন সমাজের লক্ষ্যে জাতীয় বাজেট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *