সুবিচার নিশ্চিত করা আমাদের চ্যালেঞ্জ: আইনমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্কঃ

আইনমন্ত্রী মো. আনিসুল হক বলেছেন, আমাদের চ্যালেঞ্জ হবে সুবিচার নিশ্চিত করা। সুষ্ঠু বিচার নিশ্চিত করা।মঙ্গলবার নতুন মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করার পর প্রথম দিন অফিসে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।তিনি বলেন, আমাদের কিছু সমস্যা আছে। সেগুলো আমরা নির্ধারণ করে সমাধানের চেষ্টা করবো। আমাদের গত সরকারের সময় অনেকগুলো পদক্ষেপ ছিল। সেগুলো আরো জোরদার ও সুদৃঢ় করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, আমি একটি কথা বলতে চাই, গতবার আমাদের মন্ত্রণালয়ের দুটো বিভাগই আমাকে সহযোগিতা করেছে। ফলে অনেক কাজ করা সম্ভব হয়েছে। গতবারের অভিজ্ঞতার আলোকে অসম্পাদিত কাজগুলো এগিয়ে নিতে চাই।

আনিসুল হক বলেন, বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনা অসম্ভব নয়, তবে কঠিন। এটা নিয়ে আমরা কাজ করেছি। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনা কঠিন হওয়ার কারণ আছে। আর সেটা হলো ’৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু খুনের পর রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় খুনিদের দেশের বাইরে পাঠানো হয়েছে। দেশেও অনেককে প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে।

আপনারা জানেন, ২০০১ সালে খালেদা জিয়া ক্ষমতায় আসার পর বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পৃষ্ঠপোষকতা করা হয়েছে। এমনকি তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার মুখ্যসচিব বিমানবন্দরে গিয়ে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী মেজর ডালিমের স্ত্রীর লাশও রিসিভ করেছেন, বলেন আইনমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘এরপর ২০০৯ সালে আমাদের সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনার চেষ্টা শুরু হয়। আমরা ফিরিয়ে আনতে পারিনি। তবে ব্যর্থ হয়েছি এটাও ঠিক নয়। আমরা একটা প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে কাজ করেছি। এ প্রক্রিয়া অনেক বেশি লং হবে।’

‘আর এসব খুনি কোথায় আছেন তাদের শনাক্ত করাও একটু কঠিন। তবে বঙ্গবন্ধুর খুনের নেপথ্যে কারা দায়ী তাদের শনাক্তে আমরা কমিশন গঠনের চেষ্টা করবো।’

মন্ত্রী বলেন, আমি ধন্যবাদ জানাই ও কৃতজ্ঞতা জানাই প্রধানমন্ত্রীকে। তিনি আমাকে আবারো আইনমন্ত্রী বানিয়েছেন। আমার প্রাইয়োরিটি হবে আমার অসমাপ্ত কাজকে সমাপ্ত করা। মানুষের সুবিচার কী হওয়া উচিত তা কিন্তু বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া সংবিধানে উল্লেখ আছে। সেই বিষয়গুলো নিশ্চিত করেই মানুষের সুবিচারের ব্যবস্থা করা হবে।

সময়নিউজ২৪.কম/ এ এস আর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *