সেই এমপি রানাকে হজ্বে যাওয়ার অনুমতি দিলেন আদালত

টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধি:শামছউদ্দিন সায়েম
টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের সাবেক এমপি আমানুর রহমান খান রানাকে হজ্বে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছেন আদালত। আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হত্যা মামলার প্রধান আসামি রানা বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) এ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের দিন আদালতে হাজির হয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে হজে যাওয়ার অনুমতি চেয়ে আবেদন করেন।


দীর্ঘ ৩৪ মাস কারাগারে থাকার পর আমানুর গত ৯ জুলাই জামিনে মুক্তি পান। জামিন পাওয়ার পর মুক্ত অবস্থায় এ প্রথম তিনি ফারুক হত্যা মামলায় বৃহস্পতিবার আদালতে হাজির হলেন।
টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলী (পিপি) মহসিন সিকদার জানান, টাঙ্গাইলের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে ফারুক আহমেদ হত্যা মামলার ময়না তদন্তকারী চিকিৎসক মোজাম্মেল হোসেন সাক্ষ্য দেন। এরপর আসামি পক্ষের আইনজীবীরা তাকে জেরা করেন। এ নিয়ে এ মামলার মোট ১৮ জনের সাক্ষী দেওয়া হলো।
চিকিৎসকের সাক্ষ্য দেওয়ার পর রানা আইনজীবীর মাধ্যমে হজব্রত পালনের জন্য সৌদি আরব যাওয়ার অনুমতি প্রার্থনা করে আবেদন দাখিল করেন। পরে আদালতের বিচারক রাশেদ কবির রানার হজ্বে যাওয়ার আবেদন মঞ্জুর করেন।


উল্লেখ্য,দীর্ঘ ২২ মাস পলাতক থাকার পর রানা ২০১৬ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর এ আদালতেই আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। পরে ফারুক হত্যা মামলায় গত মার্চে এবং এ মাসেই দুই যুবলীগ নেতা হত্যা মামলায় উচ্চ আদালত থেকে জামিন লাভের পর গত ৯ জুলাই তিনি মুক্তি পান।
২০১৩ সালের ১৮ জানুয়ারি জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ফারুক আহমদের গুলিবিদ্ধ মরদেহ তার কলেজপাড়া এলাকার বাসার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনার তিনদিন পর তার স্ত্রী নাহার আহমেদ বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। ২০১৪ সালের আগষ্টে গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তে এ হত্যায় রানা ও তার ভাইদের নাম চলে আসে।

২০১৬ সালের ৩ ফেব্রুয়ারী তদন্ত শেষে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় গোয়েন্দা পুলিশ। এই মামলায় আমানুর রহমান রানা ছাড়াও তার তিন ভাই টাঙ্গাইল পৌরসভার সাবেক মেয়র সহিদুর রহমান খান মুক্তি, ব্যবসায়ী নেতা জাহিদুর রহমান খান কাকন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সানিয়াত খান বাপ্পাসহ ১৪জন আসামি রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *