হাজীগঞ্জ নার্গিস ফুড প্যাভেলিয়ন হোটেলে খাবারের সাথে ১৫’শ টাকা হল চার্জ রাখায় তোলাপাড়, বেচা কেনায় ধস

স্টাফ রিপোর্টার:

হাজীগঞ্জ নার্গিস ফুড প্যাভেলিয়ন হোটেলে খাবারের সাথে ১৫’শ টাকা হল চার্জ রাখায় তোলাপাড়, বেচা কেনায় ধস। নারগিস ফুড প্যাভেলিয়নে খাবারের বিল দিতে এসে অবাক হলেন কাস্টমার। ৭ জনের খাবারের বিল আসলো ১ হাজার ৭২০ টাকা। একই সঙ্গে হোটেলে বসে ২ ঘণ্টা সময় কাটানোর জন্য চার্জ হলো আরও ১ হাজার ৫শ টাকা। মোট ৩ হাজার ২২০ টাকা। দর কষাকষি করে ৫শ টাকা কমিয়ে রশিদের মাধ্যমে ২ হাজার ৭২০ টাকা পরিশোধ করতে হলো তাদের।

ঘটনাটি হাজীগঞ্জ বাজারের নারগিস ফুড প্যাভেলিয়নে রোববার (৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় মেরিকো বাংলাদেশ লিমিটেডের ৭ কর্মকর্তা বসে আলাপ-চারিতা ও খাবার খেতে গিয়ে বিপাকে পড়ে। কাস্টমার থেকে হোটেল চার্জ বাবদ ১৫’শ টাকা নেয়ার ঘটনায় সাধারন জনগণের মাঝে তোলপাড় । এ ঘটনায় সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর ওই হোটেলে বেচা কেনায় ধস নেমেছে। অনেক ভোক্তা ওই হোটেলের খাবার মান নিয়ে ফেসবুকে কমান্টস করছে।

এদের মধ্যে ভুক্তভোগী শাহাদাত ও গোপাল চন্দ্র সৈকত বলেন, প্রথমে ২জন প্রবেশ করি। তখন সময় ৫ টা ১৫ মিনিট। আধাঘণ্টা পর আরও ৫জন আসে। মোট ৭জন কোম্পানির আলাপ ও খাবার শেষে বিল দিতে গিয়ে রোষানলে পড়ি। অগ্রিম বুকিং দেয়াও হয়নি। আমাদের ভিআইপি কেবিনে অন্যান্য কাস্টমারও ছিল। তারাও আমাদের বাড়তি চার্জের বিষয়ে কিছু বলেনি। অথচ বিল দিতে এসে দেখি হলচার্জ ১ হাজার ৫শ টাকা ধরা হয়েছে।

হোটেলের ম্যানেজার ও মালিক আওলাদ হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘তারা ২ঘণ্টা ছিল। তাই হলচার্জ ধরা হয়েছে। ঘণ্টা নিয়মে চার্জ ধরার চার্ট রয়েছে কিনা তা জানতে চাইলে তিনি বলেন, তা নাই। তারা তো কোম্পানির লোক। এ জন্য হলচার্জ ধরা হয়েছে।এ বিষয়ে হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বৈশাখী বড়ুয়া বলেন, ২ ঘণ্টায় হলচার্জ ধরা ঠিক হয়নি। তাও আবার ১ হাজার ৫শ টাকা। রশিদ দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সময় নিউজ২৪.কম/এমএম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *